চকরিয়ার ভেওলায় বসতবাড়িতে ঢুকে গৃহকত্রীকে কুপিয়ে জখম, মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়ায় বসতভীটার জমি বিরোধের পূর্বশত্রুতার জেরধরে এক গৃহকত্রীকে বাড়িতে ঢুকে অতর্কিত অবস্থায় হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়েছে। হামলাকালে গৃহকত্রী জিনিয়া মনি (২৩)কে কুপিয়ে ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে সর্বশরীরে গুরুতর জখম করা হয়েছে। তাকে মুমুর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। গত ১৯ সেপ্টেম্বর বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার পূর্ববড়ভেওলা ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সিকদারপাড়া গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা। এ নিয়ে ওই এলাকার মোক্তার আহমদের পুত্র মো: জয়নাল আবেদীন (৩৫) এর স্ত্রী। তিনি বাদী হয়ে ২০ সেপ্টেম্বর’২০ইং থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেন। এতে আসামী করা হয়েছে একই এলাকার মৃত আবদুল হকের পুত্র মনোর আলম (প্রকাশ মনিয়া ডাকাত), হাফেজ শামসুল আলম,নুরুল আলম ভূট্টো, মো: মোজাম্মেল হক, মনোর আলম (প্রকাশ মনিয়া ডাকাতের পুত্র মো: মুন্না, বাদশা বলির পুত্র মো: রোকন উদ্দিন ও মৃত আবদুল হকের পুত্র বদর মিয়াসহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে।
বাদী মো: জয়নাল আবেদীন অভিযোগে জানান, অভিযুক্তদের সাথে তাদের মধ্যে বসতভীটাসহ বিভিন্ন বিষয়ে পূর্বশত্রুতার বিরোধ ছিল। এরজের ধরে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে অভিযুক্ত মনোর আলম প্রকাশ মনিয়া ডাকাতের নেতৃত্বে তার স্ত্রী জিনিয়া মনির উপর ধারালো অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়েছে। এক পর্যায়ে হত্যার চেষ্টার মাথা লক্ষ্য করে জখম করে এবং সর্বশরীরে উপর্যপুরী আঘাত করে। এক পর্যায়ে মুমুর্ষ অবস্থায় পড়ে থাকলে তার কাছ থেকে ৬৫ হাজার টাকা মূল্যের ১ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার লুট করে এবং বাড়ির টিউবওয়েল ও ঘেরা বেড়া ভাংচুর করে।
চকরিয়া থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো: মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, ঘটনার বিষয়ে একটি লিখিত এজাহার পেয়েছেন। তা তদন্তের জন্য মাতামুহুরী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই সিরাজুল হককে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। সত্যতা পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.