চকরিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে কুপিয়ে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়ায় পাওনা টাকা চাওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে পাওনাদারকে কুপিয়ে ও রড দিয়ে আঘাত করে হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড পহরচাঁদা কুতুববাজারের পশ্চিম উত্তর পার্শ্বে সবুজপাড়া গ্রামে ঘটেছে এ ঘটনা।
অভিযোগে জানাগেছে, বিগত ২৯ বছর পূর্বে কোনাখালী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড চরপাড়া থেকে স্বপরিবারে বরইতলী পহরচাঁদা সবুজপাড়াস্থ গ্রামীণ সংলগ্ন এলাকায় গিয়ে বসবাস করছেন মোক্তার আহমদের ছেলে মো: ইসমাইল। বাড়ির পাশ্ববর্তী মোজাফ্ফর আহমদের ছেলে খোরশেদ আলমের কাছ থেকে পূর্বের পাওনা ৭শত টাকা খোজায় ক্ষিপ্ত হয়ে টাকা ধার দাতা মো: ইসমাইলকে গত ২২ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টার দিকে জনৈক আজিজের বাড়িতে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে ও রড দিয়ে আঘাত করে গুরুতর জখমসহ বাম হাত ভেঙ্গে দিয়েছে। হামলায় নেতৃত্ব দেন অভিযুক্ত মোজাফ্ফর আহমদের ছেলে খোরশেদ আলম, তার ভাই ইকবাল, এজাহার মিয়ার ছেলে আবদুল আজিজ, নুরুল ইসলামের ছেলে মোক্তার ও মৃত এমদাদের ছেলে শেফায়ত উল্লাহ। হামলাকালে নগদ ৩০ হাজার টাকা ও মোবাইল সেট ছিনিয়ে নেয়। ঘটনাস্থল থেকে আহত ইসমাইলকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এরপর সিটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই সময় তাকে আশংখাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেলে রেফার করা হলে সেখান থেকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। বর্তমানেও তার অবস্থা আশঙ্খাজনক রয়েছে বলে জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। অভিযুক্ত খোরশেদের বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে একাধিক মামলা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.