কোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে দুই ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ভাংচুর ও লুটপাট

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়া উপজেলার কোনাখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদারের উপস্থিতিতে ৮/১০জনের সন্ত্রাসী বাহিনী প্রকাশ্য দিবালোকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালিয়েছে। কোনাখালী ইউনিয়নের পুরুত্যাখালী বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে প্রতিষ্ঠানের মালিক বেদারুল ইসলাম আদর ও ৭ নং ওয়ার্ডের বর্তমান এমইউপি কলিম উল্লাহ বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। অভিযোগে দোকান মালিক ও ভূক্তভোগী আদর জানান, জায়গা জমি নিয়ে পূর্বশত্রুতা ও সদ্যসমাপ্ত উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদীর পক্ষে নির্বাচনী কাজ করায় ক্ষিপ্ত হয়ে পরিকল্পিত ভাবে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়েেেছ।
অভিযোগে জানা যায়, কোনাখালী ইউনিয়নের পুরুত্যাখালী বাজারের পূর্ব পাশে ও নতুন মসজিদের দক্ষিণ পাশে তিন রাস্তার মাথায় বেদারুল ইসলাম আদরের দোকানে চেয়ারম্যান সহ ৮/১০ জন পরিকল্পিত ভাবে লুটপাঠ, হামলা ও ভাংচুর চালায়।
চেয়ারম্যানের দিদারের নেতৃত্বে স্থানীয় মৃত জামাল হোছনের ছেলে আলী আকবর, কামাল উদ্দীনের ছেলে মোহাম্মদ লায়েক, জামাল উদ্দীনের ছেলে কবির আহমদ প্রকাশ কালা বদা, মৃত বদিউজ্জমানের ছেলে আবদুল হামিদ, জামাল হোছনের ছেলে নুরুল ইসলামসহ আর ২/৩ জন। ঘটনার সময় দোকানেন ক্যাশবক্স থেকে নগদ ৩০ হাজার টাকা ও লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। তবে চেয়ারম্যান দিদার এসব বিষয়ে তিনি নির্দোষ দাবী করেন।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: হাবিবুর রহমান জানান, ঘটনার বিষয়ে লিখিত অভিযোগ পেয়েছেন। তদন্তকাজ শেষে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.