চকরিয়ায়২৭ হাজার ৭১৬ ভোটে সাঈদী বিজয়ী

কক্স টিভি ঃ

সোমবার (১৮ মার্চ) রাত ১১টার দিকে উপজেলা কনফারেন্স হলে ভোট গণনা শেষে প্রার্থীদের বেসরকারী ফলাফল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।
এ সময় রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা, জেলা নির্বাচন অফিসার মোহাম্মদ বশির আহমদ, চকরিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার সাখাওয়াত হোসেনসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
ফলাফল অনুযায়ী, আনারস প্রতীকে ফজলুল করিম সাঈদী পেয়েছেন ৫৭ হাজার ৭০৫ ভোট। নৌকা প্রতীকে গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী পেয়েছেন ২৯ হাজার ৯৮৯ ভোট।
উপজেলার ৯৯টি ভোটকেন্দ্রের মধ্যে ৯৮ কেন্দ্রে নৌকার চেয়ে আনারসের ব্যবধান রয়েছে ২৭ হাজার ৭১৬ ভোট।
চেয়ারম্যান পদে অন্য দুই প্রার্থী মোক্তার আহমদ চৌধুরী (মোটর সাইকেল) ৮৯ ভোট এবং মোহাম্মদ জহির (দোয়াত কলম) ১ হাজার ৮১ ভোট পেয়েছেন। পালাকাটা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের ভোট স্থগিত রাখা হয়েছে। ওই কেন্দ্রে ভোটের সংখ্যা ৪ হাজার ৭৬৮।
নির্বাচনে মোট অবৈধ ভোটের সংখ্যা ১২৫০ এবং প্রদত্ত ভোটের সংখ্যা ৯০ হাজার ১১৪টি।

সাধারণ মানুষের অভিমত, প্রতীক দেখে ভোট দেয়নি জনগণ। ব্যক্তির ইমেজ, জনপ্রিয়তা ও গ্রহণযোগ্যতা বিবেচনা করেছে ভোটারেরা।আওয়ামী লীগের প্রার্থী গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর তুলনায় স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগ নেতা ফজলুল করিম সাঈদীর জনপ্রিয়তা অনেক বেশী। শুধু চকরিয়া পৌরসভা এলাকায় নয়, গ্রামে গঞ্জেও সাঈদীকে এক নামে চেনে সাধারণ মানুষ। ভোটের বেলায় সেটি প্রমাণ দিয়েছে জনগণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.