হযরত আব্দুল মালেক শাহ’র ওরশ সোমবার

হযরত আব্দুল মালেক শাহ’র ওরশ সোমবার

নিজস্ব প্রতিবেদক: কুতুবদিয়ায় সোমবার থেকে শুরু হচ্ছে গাউসে মোখতার, হযরতুল আল্লামা শাহ আব্দুল মালেক আল-কুতুবী (রহ:) এর ১৯তম বার্ষিক ওরশ ও ফাতেহা শরীফ এর কার্যক্রম। চট্টগ্রাম শহর থেকে ভক্তদের যাতায়াতের সুবিধার্তে ১৯ ফেব্রুয়ারী সদরঘাট টার্মিনাল থেকে বিশেষ স্টিমার সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন অভ্যন্তরীন নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষ ।

ইতিমধ্যে ওরস্ ও ফাতেহা শরীফের সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন দরবারের প্রেস অ্যান্ড মিডিয়া উইং এর সচিব এহসান আল কুতুবী।

তিনি জানান, দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে ভক্তদের আগমন শুরু হয়েছে। সোমবার ও মঙ্গলবার (১৮ ও ১৯ ফেব্রুয়ারি) থেকে বিভিন্ন অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে ১৯ তম বার্ষিক ওরস ও ফাতেহা শরীফ এর দু’দিনব্যাপী এ কার্যক্রম চলবে। সকাল থেকে উপজেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজ, মাদরাসা ও হেফজখানার শিক্ষার্থীবৃন্দের হামদ, না’ত, কেরাত, শানে গাউসে মুখতার ও বাদে আছর পুরুষ্কার বিতরনীর মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হবে। বাদে মাগরিব থেকে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে আগত ওলামায়ে কেরামগনের নির্দিষ্ট বিষয়ভিত্তিক আলোচনা, বাবাজান কেবলাকে নিয়ে ভক্তদের স্মৃতিচারণ, শিল্পীরা হাম্দ-নাত ও শানে গাউসে মুখতারসহ বিভিন্ন গজল পরিবেশন করবেন।

এছাড়াও আগত ভক্তদের সার্বিক নিরাপত্তায় জেলা ও উপজেলা প্রশাসন,পুলিশ, কোস্টগার্ড, আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়োজিত থাকবেন। পাশাপাশি দরবারের বিভিন্ন স্বেচ্ছা-সংগঠনের কর্মীবৃন্দ নির্দিষ্ট স্থানে দায়িত্ব পালন করবেন।

তিনি আরও জানান, মঙ্গলবার প্রধান দিবস (১৯ ফেব্রুয়ারি) সকাল থেকে নির্দিষ্ট নিয়মানুযায়ী ওলামায়ে কেরামগনের বিষয় ভিত্তিক আলোচনা, স্মৃতিচারণ, হামদ্-না’ত, শানে গাউসে মুখতার, জিকির, জেয়ারত, তাবারুক বিতরণ অনুষ্ঠিত হবে। গভীর রাতে দরবার শরীফের পরিচালক শাহজাদা শেখ ফরিদ আল কুতুবী (মজিআ) সমাপনী ভাষন দান করবেন। পরে জাতি, ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে মুসলিম উম্মাহ’র ঐক্য ও সংহতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত এর মাধ্যমে ১৯ তম বার্ষিক ওরস ও ফাতেহা শরীফ এর কার্যক্রম শেষ হবে।

এদিকে ১৯তম বার্ষিক ওরশ ও ফাতেহা শরীফে চট্টগ্রাম থেকে যাতায়াতের সুবিধার্থে একটি বিশেষ স্টিমার সার্ভিসের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দরবারের এন্তেজামেয়া কমিটি’র নগরের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাহফুজুর রহমান খান।

তিনি জানান, ১৯ ফেব্রুয়ারী সকাল ৮টায় সদরঘাট টার্মিনাল থেকে স্টিমারটি কুতুবদিয়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করবে। স্টিমারটি পরদিন বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টায় কুতুবদিয়া দরবার ঘাট হতে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবে।

১৯ তম বার্ষিক এ ওরস ও ফাতেহা শরীফ সফল করতে সর্বস্থরের আশেক, ভক্তদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দরবার শরীফের শাহজাদা আল্লামা মনিরুল মন্নান আল-মাদানী (মজিআ), শাহজাদা অহিদুল মিল্লাত আল কুতুবী (মজিআ), শাহজাদা আতিকুল মিল্লাত আল কুতুবী (মজিআ), শাহজাদা সৈয়দুল মিল্লাত আল-কুতুবী (মজিআ), শাহজাদা মাওলানা জিল্লুল করিম আল কুতুবী (মজিআ) ও শাহজাদা আবদুল করিম আল কুতুবী (মজিআ)।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.