এসএসসি: রাতে পরীক্ষা দিলেন কুষ্টিয়ার এক শিক্ষার্থী

bdnews24

ধর্মীয় বিধান মেনে কর্তৃপক্ষের অনুমতি ও ব্যবস্থাপনায় রাতে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন কুষ্টিয়ার খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী।

শনিবার কুমারখালী এমএন পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এভাবে পরীক্ষা দেন রিকি হালদার।

সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হয়ে তার পরীক্ষা শেষ হয় রাত ৯টায়।

রিকির পরিবার জানায়, তাদের ধর্মীয় বিধান মতে শনিবার দিবালোকে কোনো প্রকার লেখালেখি করা যাবে না। তাই শনিবার সকালের পরীক্ষা সূর্যাস্তের পর দেওয়ার অনুমতি চেয়ে যশোর শিক্ষা বোর্ডে আবেদন করেন রিকি হালদার। শিক্ষা বোর্ড আবেদন মঞ্জুর করে ২, ৯, ১৬ ও ২৩ ফেব্রুয়ারি শনিবারের বাংলা ১ম পত্র, গণিত, রসায়ন ও উচ্চতর গণিত পরীক্ষা দিনের পরিবর্তে সূর্যাস্তের পর নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে পত্র পাঠিয়েছে কেন্দ্র সচিবকে।

কুমারখালী এমএন পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও কেন্দ্র সচিব ফিরোজ মহম্মদ বাশার বলেন, যশোর শিক্ষা বোর্ডের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

“রিকি সকালে পরীক্ষা কেন্দ্রে এসেছে। অন্য সবাই পরীক্ষা দিয়ে চলে গেছে, কিন্তু রিকিকে আমরা কেন্দ্রের আলাদা কক্ষে অপেক্ষায় রেখেছি। সারাদিনই কক্ষের মধ্যে অবস্থান করে খাওয়া-দাওয়াসহ সবকিছু সে ওই রুমে বসেই করে। সন্ধ্যা ৬টায় রিকি পরীক্ষার আসন গ্রহণ এবং পরীক্ষা শুরু করে।  রাত ৯টায় খাতা জমা দিয়ে কক্ষ ত্যাগ করেছে।”

রিকির পরীক্ষা গ্রহণে ১০ সদস্যের টিম দায়িত্ব পালন করেছে বলে জানান কেন্দ্র সচিব।

রিকি কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার পারফেক্ট ইংলিশ ভার্সন স্কুলের এসএসসি বিজ্ঞান বিভাগের পরীক্ষার্থী। তার রোল নম্বর- ১১১৩৫২, রেজিস্ট্রেশন নম্বর ১৫১৩৬০৪৫২২; শিক্ষাবর্ষ ২০১৭-১৮।

রিকি হালদার বলেন, “ধর্মীয় বাধার কারণে শনিবারের পরীক্ষাটা সকাল ১০টার পরিবর্তে সূর্যাস্তের পর সন্ধ্যা ৬টা থেকে দেবো। ‘সেভেন্থ ডে এডভান্টিস্ট’সম্প্রদায়ের ধর্মীয় বিধিমতে, শনিবার আমরা ধর্মীয় উপাসনা করি। শনিবার পড়াশোনা, লেখালেখি, খেলাধুলা, কেনাকাটাসহ সকল প্রকার কাজ থেকে বিরত থাকি। আমাদের সম্প্রদায়ের সকলেই এই রীতি মেনেই পরীক্ষা দেয়।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.