চকরিয়ায় অবৈধ বালুমহালে যৌথ অভিযানে ১১টি সেলুমেশিন জব্দ

মো: নিজাম উদ্দিন,চকরিয়া:
চকরিয়ায় বিজিবি ও বন বিভাগের যৌথ অভিযানে অবৈধ বালু মহল থেকে ১১টি সেলুমেশিন, সরঞ্জামাদি ও একটি ডাম্পার গাড়ী জব্দ করেন। অভিযানকালে পালিয়ে যায় জড়িতরা। শনিবার চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে সংরক্ষিত বনাঞ্চল মধুশিঁয়া নামক এলাকার অবৈধ বালু পয়েন্টে এ অভিযান চলে। অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার উত্তর বন বিভাগের ফুলছড়ি রেঞ্জ সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) বেলায়েত হোসেন ও রেঞ্জ কর্মকর্তা ছৈয়দ আবু জাকারিয়া। সাথে ছিলেন রামু বিজিবি-৩০ এর একটি ফোর্স। ফুলছড়ি রেঞ্জ অধীনস্থ সকল বিট কর্মকর্তা, স্টাফ, ভিলেজার, ইউপি সদস্য, সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।
সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, চকরিয়া উপজেলারখুটাখালীর আনোয়ার হোসেন মেম্বার, চকরিয়ার রহিম মেম্বার, নাছির, খুটাখালীর সাইফুল, বশির ড্রাইভার, পেটান, জয়নাল, কামাল, হুমাইয়ুন, সালাহ উদ্দিন, বেলাল, শামসু ও মিন্টুসহ ২০-২৫ জনের একটি সংঘবদ্ধ প্রভাবশালী চক্র বর্নিত স্থান থেকে দীর্ঘ সময় ধরে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছিল। বালু উত্তোলন কাজে ব্যবহার করা হয় ডজনাধিক নিষিদ্ধ সেলুমেশিন। এতে মধুশিঁয়া গুধার পাড় এলাকায় শতাধিক একর বনভুমি ও ছড়াখালের অংশ বিলীন হয়ে গেছে। বিষয়টি ইতিপূর্বে পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজারকে অবগত করা হয়েছিল। ফুলছড়ি রেঞ্জ কর্মকর্তা ছৈয়দ আবু জাকারিয়া বলেন, কিছু অসাধু বালু ব্যবসায়ী সংরক্ষিত বনাঞ্চল খুটাখালীর মধুশিঁয়া পয়েন্ট থেকে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করছিল। ট্রাক যোগে এসব বালু দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে আসছিল। বিষয়টি বন বিভাগের নজরে আসলে বিজিবি সহকারে যৌথ অভিযান চালানো হয়। সারাদিনের অভিযানে ১১টি সেলুমেশিন, ৫০ফুট পরিমাণ পাইপ ও একটি বালু বহনের ডাম্পার গাড়ী জব্ধ করা হয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা দেওয়া হচ্ছে। তিনি আরো জানান, অভিযান অব্যাহত থাকবে। সংরক্ষিত বনাঞ্চল থেকে বালু উত্তোলন করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.