তৃণমূলের আ’লীগে জনপ্রিয় নারী নেত্রী জন্নাতুল বকেয়া রেখা সংরক্ষিত আসনে এমপি চান

আবদুল মজিদ,চকরিয়া:
কক্সবাজার জেলার সংরক্ষিত আসনে জাতীয় সংসদ সদস্য পদ পেতে আগ্রহী চকরিয়া উপজেলা বিশিষ্ট নারীনেত্রী ও সমাজসেবীকা জন্নাতুল বকেয়া রেখা। সংরক্ষিত নারী আসনে সর্বত্রে আলোচনায় রয়েছে তার নাম। ইতিমধ্যে তিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন বোর্ড থেকে সংরক্ষিত আসনের জন্য মনোনয়নপত্রও সংগ্রহ করেছেন।
নারী নেত্রী জন্নাতুল বকেয়া রেখা ১৯৮৮ সন থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত, তিনি তৎকালীন চকরিয়া কলেজ ছাত্রলীগের সদস্য, কৈয়ারবিল ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, পরবর্তী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক (২০০৯), চকরিয় উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক (২০১২), চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, জাতীয় মানবাধিকার কনভেনশন চকরিয়া উপজেলার সভাপতি, আজীবন সদস্য-বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি কক্সবাজার ইউনিট, প্রতিনিধি জাতীয় মহিলা সংস্থা চকরিয়া, সদস্য- লিগ্যাল এইড কমিটি চকরিয়া। সভাপতি জন্নাতুল বকেয়া ফাউন্ডেশন ও প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি পদ্মফুল নারী উন্নয়ন সংস্থা চকরিয়া, শিক্ষাক্ষেত্রে তিনি জমি দাতা ও প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি চকরিয়া উপজেলার কৈয়ারবিল খোজাখালী পাহাড়পাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, প্রতিষ্ঠাতা জন্নাতুল বকেয়া ইনস্টিটিউট এন্ড কেজি স্কুল চকরিয়া পৌরসভা, প্রতিষ্ঠাতা জন্নাতুল বকেয়া স্কুল এন্ড কলেজ কৈয়ারবিল চকরিয়া। এছাড়াও তিনি আর্ন্তজাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস-২০১৩ সনে সম্মাননা গ্রহণ করেন এবং উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ট জয়িতা নির্বাচিত হন। পেকুয়া-চকরিয়া সাংবাদিক ফোরাম কর্তৃক রতœগুণিজন-২০১১ সম্মাননা পান, বন্ধন ড্যান্স একাডেমী এন্ড কালচারাল অর্গানাইজেশন বাংলাদেশ কর্তৃক বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য বিবিএ এওয়ার্ড-২০১৩ সম্মাননা পান। নারী নেত্রী জন্নাতুল বকেয়া রেখা সমাজ সেবা,শিক্ষা, রাজনীতি, রাজপথের আন্দোলনসহ সর্বক্ষেত্রে অবদান রেখে চলছেন। জন্নাতুল বকেয়া রেখা চকরিয়া উপজেলার কৈয়ারবিল ইউনিয়নের খোজাখালী গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারের মরহুম আহমদ কবিরের মেয়ে। তার স্বামী বীরমুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযোদ্ধের সংগঠক ও ফরিদগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুর রবের সুযোগ্য পুত্র মো: আবু ইউছুফ ছাত্র জীবন থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত।
জানা যায়, একাদশ জাতীয় নির্বাচনের পরবর্তী সময়ে আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক মহল, ভক্ত ও শুভাকাঙ্খীরা জন্নাতুল বকেয়া রেখাকে সংরক্ষিত আসনের এমপি হিসেবে পেতে তৃণমূলের নেতাকর্মীরা আলোচনায় রেখেছেন। তাদের মতে ত্যাগী নারী নেত্রী জন্নাতুল বকেয়া রেখা একাদশ সংসদ নির্বাচনসহ আগে ও পরে বিভিন্ন সময়ে দলের জন্য একজন নিবেদিত নারীনেত্রী হিসেবে কাজ করেছেন। দলের দু:সময়ে বিগত ১৯৯১, ১৯৯৬ এবং ১/১১ রাজপথের সকল আন্দোলনে ছিলেন এই নেত্রী। ৯০’র স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলন, ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে রাজপথ মুখড়িত করে রাখেন নারী নেত্রী রেখা। বারবার হামলা-মামলায় শিকার হয়েও নিবেদিত হয়ে দলের পক্ষেই কাজ করেছেন। কোন বাধাই তাকে আওয়ামী লীগের রাজনীতি থেকে ঠেকিয়ে রাখতে পারেনি। তাই সংরক্ষিত নারী আসনে তাকে এমপি হিসেবে তাকে দেখতে চান দলীয় নেতাকর্মী ও শুভাকাঙখীরা।
জানতে চাইলে নারী নেত্রী জন্নাতুল বকেয়া রেখা বলেন, আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জনগণের আশা-আকাঙ্খার বাস্তবায়নে ৪র্থ বারের মত রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় অধিষ্টিত হয়ে সমগ্র দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে দেশের সকল ধর্মের মানুষ শান্তিতে ও নিরাপদে থাকে। তাই উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বিকল্প নাই। আসন্ন সংরক্ষিত আসনের নির্বাচনে দল থেকে আমাকে মূল্যায়ন করবে এটাই আমার প্রত্যাশা। এজন্য সকলের দোয়া ও আর্শিবাদ কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.