চকরিয়ায় প্রেমিক জুটি আটক, প্রেমিক শ্রীঘরে, আদালতে জবানবন্দী দিয়ে পিতার জিম্মায় প্রেমিকা

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়ায় পুলিশের অভিযানে আটক হয়েছে প্রেমিক জুটি। আটকের পর প্রেমিকা আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দী দিয়ে পিতার জিম্মায় গেলেও আদালত শ্রীঘরে পাঠিয়েছে প্রমিককে। গতকাল ২৫ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার মগবাজার-কোট সেন্টার এলাকায় পুলিশ এ অভিযান চালায়।
প্রাপ্ত তথ্যে জানাগেছে, চকরিয়া উপজেলার পূর্ববড়ভেওলা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড সিকদারপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের পুত্র আরিফুল ইসলামের সাথে প্রেমের সর্ম্পকের সূত্র ধরে অজানার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমান একই এলাকার শওকত ওসমান বাবুলের মেয়ে নুরে জন্নাত রিমন। এ ঘটনায় প্রেমিক আরিফুল ইসলামসহ তার আত্মীয় স্বজনের বিরুদ্ধে মেয়েকে অপহরণের অভিযোগ তুলে চলতি ৮ নভেম্বর’১৮ইং চকরিয়া থানায় মামলা নং ১৮ দায়ের করেন।
অভিযানে নেতৃত্ব দেওয়া মাতামুহুরী পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ (এসআই) অরুণ বড়–য়া জানান, থানার অফিসার ইনচার্জ মামলাটি তাকে তদন্তের দায়িত্ব দেন। বেশ কয়েকদিন ধরে প্রেমিক জুটির সন্ধান চেয়ে বিভিন্ন স্থানে সোর্সের মাধ্যমে খবরা-খবর নেন। সর্বশেষ চট্টগ্রাম থেকে চকরিয়ায় ফিরলে তার নেতৃত্বে পৌরসভার মগবাজার-কোট সেন্টার এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রেমিক জুটি আরিফুল ইসলাম ও নুরে জন্নাত রিমনকে আটক করতে সক্ষম হন। পরে তাদের দু’জনকে একই আদালতে তোলেন পুলিশ। তথ্যে জানাগেছে, আদালতে ২২ ধারায় স্বীকারোক্তিতে আরিফুল ইসলামের সাথে দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের সর্ম্পক রয়েছে বলে জানান প্রেমিকা রিমন। তার প্রেমে কিংবা প্রেমিকের সাথে পালিয়ে যাওয়ার পেছনে অন্য কাহারো হাত নেই বলেও উল্লেখ প্রেমিকা রিমন। এমনকি বিয়ের কামিননামা না হলেও তাদের দুজনের স্ব-ইচ্ছায় গত ১০ নভেম্বর’১৮ইং নোটিরী মূলে ৬ লাখ টাকার দেন মোহরে তাদের বিয়ে হয়েছে বলেও জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.