চকরিয়ায় আদালতের চুড়ান্ত আদেশে দীর্ঘকাল পর জমির দখল বুঝে পেল ভূক্তভোগি পরিবার

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়ায় আদালতের চুড়ান্ত আদেশে দীর্ঘদিন পর অবশেষে জমির দখল বুঝে পেয়েছে ভূক্তভোগি পরিবার। গতকাল ৬ নভেম্বর দুপুর ১২ টায় থানা পুলিশ সার্ভেয়ার সহকারে উপস্থিত হয়ে আদালতের নির্দেশ মোতাবেক জমিতে লাল পতাকা ও খুঠি স্থাপন করে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে দখল বুঝিয়ে দেন।
প্রাপ্ত তথ্যে ও অভিযোগে জানাগেছে, চকরিয়া উপজেলার পৌরসভা ১নং ওয়ার্ডের আমানপাড়া গ্রামের মরহুম আকবর আহমদের স্ত্রী মরিয়ম খাতুন, পুত্র আবুল কালাম, নাজেম উদ্দিন, নাছির উদ্দিন গংয়ের পৈত্রিক মালিকানাধীন লক্ষ্যারচর মৌজার আরএস খতিয়ান ১৪৫৩, ১৪৭৩, দাগ নং ৩৮২৩, ৩৮২৮,১৪৭২, বিএস খতিয়ান ৩০, ৩১, ৩২, ৫২৮ দাগ নং ১০, ৫৩১৬, ৫৩১৭ এর মোট ২.০৬৩৮০ একর জমি রয়েছে। ওই জমি স্থানীয় পূর্ববড়ভেওলা ইউনিয়নের আনিসপাড়া গ্রামের মৃত হারুন অর রশিদের পুত্র আনোয়ারুল আজিম (দুলাল), শামসুল আলমের পুত্র আজিজ প্র: হাছু, মৃত ফরোখ আহমদের পুত্র শামসুল আলম, মৃত আলী হোছনের পুত্র মো: ইসমাইল, ভেওলা সিকদারপাড়া গ্রামের মোস্তাক আহমদের পুত্র নবাব মিয়া প্র: ভেট্টাইয়া, জিন্নাত আলীসহ ২৫জনের সংঘবদ্ধ সন্ত্রাসীচক্র দীর্ঘ ২যুগ ধরে ওই জমি জোর পূর্বক দখল করে আছে। এনিয়ে ভূক্তভোগী পরিবার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত,কক্সবাজারে ১৪৪ ধারা মতে এম আর মামলা (নং ২০১/১৭) দায়ের করেন। ওই মামলায় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) চকরিয়া এবং থানার অফিসার ইনচার্জ থেকে তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার প্রথমে অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেন বিজ্ঞ আদালত। পরবর্তীতে গত ২৩ সেপ্টেম্বর’১৮ইং বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত,কক্সবাজার স্থায়ী নিষেধাজ্ঞার চুড়ান্ত রায় ঘোষণা করেন। আদেশের আলোকে আদালতের ১৩৩৮নং স্মারক মূলে চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরীর নির্দেশে এএসআই পলাশের নেতৃত্বে সংগীয় পুলিশদল সার্ভেয়ার সহকারে গিয়ে আদেশপ্রাপ্ত ভূক্তভোগী পরিবারের পক্ষে বিরোধীয় জমির দখল বুঝিয়ে দিয়েছেন এবং জমিতে লাল পতাকাসহ খুঠি স্থাপন করে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.