চকরিয়ার সাহারবিলে অবৈধ খতিয়ান করায় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংখা, খতিয়ানের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়া উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের কাহারিয়াঘোনা মৌজায় নির্দিষ্ট ১৯ শতক জমির মালিকানার স্থলে সাড়ে ৪২ শতক জমি নিয়ে গোপনে অবৈধভাবে বিএস খতিয়ান সৃজন করায় জমির ভোগ-দখলদার মালিকদের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংখা দেখা দিয়েছে। এনিয়ে ভূক্তভোগী পরিবার বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আদালত,কক্সবাজারে নামজারী আপীল মামলা নং ৬৪/১৮ দায়ের করেছে। ক্ষতিগ্রস্তরা বিজ্ঞ আদালতের কাছে সৃজিত নামজারী জমভাগ খতিয়ান নং ৯২০ বাতিলসহ সুবিচার কামনা করেছেন।
অভিযোগে জানাগেছে, চকরিয়া উপজেলার কাহারিয়াঘোনা মৌজার সাহারবিল ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন ৬নং ওয়ার্ড পশ্চিম মাইজঘোনা গ্রামে মৃত লাল মিয়ার পুত্র আবু তাহের গং একই এলাকার মৃত মোহাম্মদ সাচীর পুত্র আবুল কাশেম ও মৃত আবদু ছাত্তারের স্ত্রী ইসলাম খাতুন গং ভোগ দখলীয় বসতভীটার জমিতে ২০০৭সনের ১৪ জুলাই অবৈধভাবে নামজারী জমভাগ খতিয়ান নং ৯২০ সৃজন করেন। আবু তাহের গং ক্রয় সূত্রে ১৯ শতক জমির মালিক হলেও অদৃশ্য শক্তির কারণে গোপন আতাতের বিনিময়ে অতিসুকৌশলে ১৯ শতক জমির স্থলে অবৈধভাবে সাড়ে ৪২ শতক জমি নিয়ে উল্লেখিত বিএস খতিয়ান সৃজন করেন। দীর্ঘ ১১ বছর ধরে বিষয়টি গোপন রাখার পর সম্প্রতি ওই এলাকায় রেল লাইনের রাস্তা হওয়ার কারণে অবৈধ খতিয়ান করার বিষয়টি জমি মালিকগনসহ স্থানীয়দের নজরে আসে। সর্বশেষ অতিরিক্ত সাড়ে ২৩ শতক জমি নিয়ে ভূয়া খতিয়ানের বিরুদ্ধে ভূূক্তভোগী মৃত মোহাম্মদ সাচীর পুত্র আবুল কাশেম ও মৃত আবদু ছাত্তারের স্ত্রী ইসলাম খাতুন গং আদালতে মামলাটি দায়ের করেন। বর্তমানে মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে এবং চকরিয়া উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) কার্যালয় হতে নথি তলব করেছে।
মৃত মোহাম্মদ সাচীর পুত্র আবুল কাশেম ও মৃত আবদু ছাত্তারের স্ত্রী ইসলাম খাতুন গং জানিয়েছেন, চকরিয়ার কাহারিয়াঘোনা মৌজার সাহারবিল পশ্চিম মাইজঘোনা গ্রামের বিএস খতিয়ান নং ৪৮৫ ও ৪৮৬, দাগ নং ১৭৭, ১৮০, ২০২ এ বসতভীটে তৈরী করে দীর্ঘকাল ধরে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলে রয়েছেন। এমনকি জমির আকৃতিতে বর্তমানে ১৭৭ দাগে আবুল কাশেম, ১৮০ দাগে শাহ আলম, নুরুল কবির, নুরুল আলম, বশির আহমদ, কফিল উদ্দিন ও ক্লাব ঘর (সমিতি) এবং ২০২ দাগে মো: ইসমাইল, আবুল কাশেম, নাছির উদ্দিন, হেলাল উদ্দিন ও মৌলভী গিয়াস উদ্দিন গং বসতভীটা নিয়ে স্থিত আছেন।
২০০৭সনের ১৪ জুলাই অবৈধভাবে সৃজিত বিএস খতিয়ান নং ৯২০ এর বিরুদ্ধে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আদালত,কক্সবাজারে নামজারী আপীল মামলায় (নং ৬৪/১৮) বিবাদী করা হয়েছে মোমেনা খাতুন, ছৈয়দ নুর, আবুল হোসেন, আবুল কালাম, আবু তাহের, নুর আয়েশা গংকে। তারা উল্লেখিত প্রতারকচক্র আবু তাহের গংয়ের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী জানিয়েছেন এবং রেলওয়ে এবং কক্সবাজার এলএ শাখার কর্মকর্তাদের কাছে অবৈধ ও ভূয়া খতিয়ান নিয়ে জমির কোন ধরণের ক্ষতিপূরণ না দেওয়ার জন্য দাবী জানিয়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.