চকরিয়ায় আওয়ামীলীগ নেতার পাজেরো ও মোটর সাইকেল সংঘর্ষে দুই ছাত্রলীগ নেতা নিহত

কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ায় আওয়ামীলীগ নেতার ল্যান্ডক্রোজার (পাজেরো) গাড়ীর সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটর সাইকেল আরোহী পাভেল হোসেন সবুজ (১৮) ও নবিউল আরাফাত নামের দুই ছাত্রলীগ নেতা মর্মান্তিকভাবে নিহত হয়েছে। বুধবার (২৯আগস্ট) দুুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের উপজেলার ডুলাহাজারাস্থ ছগিরশাহ কাটা (দরগা গেইট) এলাকায় এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত পাভেল চকরিয়া পৌরসভার ৯নম্বর ওয়ার্ডের দিগরপানখালী এলাকার জানে আলমের ছেলে ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এবং নিহত অপর মোটর সাইকেল আরোহী নাবিউল আরাফাত (১৭) একই এলাকার মৃত শাহ আলমের ছেলে এবং ওয়ার্ড ছাত্র লীগের সহসভাপতি। স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে পাজেরো গাড়ীতে থাকা আওয়ামীলীগ নেতাকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে।
স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চট্রগ্রাম-কক্সবাজারের মহাসড়কের ছগিরশাহ কাটা (দরগা গেইট) নামক এলাকায় বুধবার দুুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চকরিয়া থেকে কক্সবাজারগামী একটি পাজেরো গাড়ীর সাথে সজোরে ধাক্কা লাগে বিপরীত দিক থেকে আসা মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটে। এসময় মোটর সাইকেল আরোহী পাভেল হোসেন সবুজ (১৮) নামের এক ছাত্রলীগ নেতা ঘটনাস্থলে মারা যায়। এ সময় মোটর সাইকেলে থাকা অপর আরোহী নাবিউল আরাফাত নামে এক ব্যক্তি গুরুতর আহত হয়। দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে প্রথমে মালুমঘাট মেমোরিয়াল খ্রীস্টান হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।পরে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম ম্যাক্স হাসপাতালে প্রেরণ করে। সেখানে রাত সাড়ে ৯টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। দূর্ঘটনায় কবলিত পাজেরো গাড়িটি কক্সবাজার জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু’র বলে সূত্রে জানায়। দুইটি তাজা প্রাণ অকালে ঝড়ে যাওয়ায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।
কক্সবাজার-চট্রগ্রাম মহাসড়কের উপজেলার ডুলাহাজারাস্থ মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ পরিদর্শক মো: আলমগীর হোসেন দুর্ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, মহাসড়কের ছগিরশাহ কাটা এলাকায় পাজেরো গাড়ীর সঙ্গে বিপরীত দিক থেকে আসা মোটর সাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনা ঘটে। ওই সময় ঘটনাস্থলেই এক মোটর সাইকেল আরোহী নিহত হয়। এতে অপর মোটর সাইকেল আরোহী চট্টগ্রাম ম্যাক্স হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। ঘটনার পরই দুর্ঘটনাস্থল থেকে দুর্ঘটনা কবলিত গাড়িগুলো জব্দ করে হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়িতে নেয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.