গ্রামারস্কুলে স্মরণ সভায় বক্তাদের অনুশোচনা মাতামুহুরী নদীতে ডুবে একসঙ্গে পাঁচ শিক্ষার্থীর মৃত্যুর ঘটনাটি ‘চকরিয়াবাসির জন্য বেদনাদায়ক

কক্স টিভি প্রতিবেদকঃ
চকরিয়ায় ফুটবল খেলতে গিয়ে মাতামুহুরী নদীর চোরাবালিতে আটকে গ্রামার স্কুলের ৫ অধম্য মেধাবী শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যুতে তাদের স্বরণে শনিবার সকালে স্কুলের আয়োজনে স্মরণ সভা অনুষ্টিত হয়েছে। স্কুল প্রাঙ্গনে পরিচালনা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে ও শিক্ষক জাহেদুল ইসলামের সঞ্চলনায় অনুষ্টিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য হাজি মোহাম্মদ ইলিয়াছ।
অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব জাফর আলম। এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরউদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমান, চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও ফাঁসিয়াখালী ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী।
স্মরণ সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্কুলের অধ্যক্ষ ও নিহত শিক্ষার্থী সাঈদ জাওয়াদ অর্ভির বারা রফিকুল ইসলাম, নিহত শিক্ষার্থী ফারহান বিন শওকতের মাতা হুরে জন্নাত, শিক্ষক মো: নুরুল আবচার, প্রতিষ্টাতা সভাপতি ও চট্রগ্রাম বন্দর ক্যান্টনমেন্ট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ চৌধুরী মোহাম্মদ আবদুল হালিম প্রমূখ। অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন নিহত সহোদর শিক্ষার্থী এমশাদ ও মেহেরাবের বাবা আলহাজ আনোয়ার হোছাইন, শিক্ষার্থী ফারহানের বাবা শওকত আলী, তূর্ণ ভট্রাচার্য্যরে মাতা ডলি ভট্রাচার্য্য।
স্বরণ সভায় বক্তব্য রাখেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এসএম জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, সাহারবিল আনোয়ারুল উলুম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ রুহুল কুদুচ আনোয়ারী, চট্টগ্রামস্থ চকরিয়া সমিতির সহ-সভাপতি হাফেজ আমান উল্লাহ, চুনতি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আবু নঈম আজাদ, সনাক চকরিয়া সভাপতি অধ্যাপক একেএম শাহাব উদ্দিন, লক্ষ্যারচর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার, চকরিয়া কোরক বিদ্যাপীঠ প্রধান শিক্ষক মো.নুরুল আখের, চকরিয়া সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক এনামুল হক, পৌরসভার নারী কাউন্সিলর রাশেদা বেগম, কাউন্সিলর রেজাউল করিম। উপস্থিত ছিলেন নিহত শিক্ষার্থীদের স্বজন, বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী, অভিভাবক-অভিভাবিকাবৃন্দ।
সভায় বক্তারা বলেছেন, মাতামুহুরী নদীতে ডুবে একসঙ্গে পাঁচ মেধাবী শিক্ষার্থীর মৃত্যুর এই ঘটনাটি ‘চকরিয়াবাসির জন্য খুবই বেদনাদায়ক। এই ঘটনাটি চকরিয়ার ইতিহাসে একটি কালো অধ্যায় হিসেবে রচিত হবে। যা কোনদিন পুরণ হবার নয়’। শিক্ষার্থীরা তো আর ফিরে আসবেনা। তবে তাদেরকে পরিবারকে আমরা শান্তনা জানাবো এই বলে পরম করুনাময় আল্লাহ পাক যাতে তাদেরকে ধৈয্য ধারণ করার তৌফিক দেন। একই সাথে আমরা অকালে চলে যাওয়া ফুটফুটে এসব শিক্ষার্থীদের মাগফেরাত কামনা করছি আল্লাহ পাকের দরবারে। স্বরণ সভায় ওইসময় উপস্থিত সকলেই আবেগাফ্লুত হয়ে পড়েন।
স্বরণসভার আগে এদিন সকালে নিহত শিক্ষার্থীদের স্বরণে স্কুলে মিলাদ ও বর্তমান অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে কক্সবাজার- চট্রগ্রাম মহাসড়কে শোক র‌্যালী বের করা হয়। উল্লেখ্য গত ১৪ জুলাই মাতামুহুরী নদীতে ডুবে চকরিয়া গ্রামার স্কুলের মেধাবী পাঁচ শিক্ষার্থী এমশাদ, অর্ভি, ফারহান, তূর্ণ ও মেহেরাবের মৃত্যু ঘটে। ##চকরিয়া গ্রামার স্কুলে শিক্ষার্থীদের স্মরণ সভায় মঞ্চে উপস্থিত স্থানীয় এমপি, উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও থানার ওসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.