আইন্যে যদি দয়া করে একটা কার্ড দিতাইন


ওমর ফারুক সুমন, হালুয়াঘাটঃ
আমারে কেউ একটা কার্ড দেয়না! কত চেয়ারম্যান মেম্বার আইলো! কত মেম্বাররে কইলাম! কেউ দেয়না বাবা! আমি এহন চাইয়া মাইগ্যা খায়। ভিক্ষাও করতে পারিনা। সড়ম করে। এক সময় আমার অনেক কিছুই ছিলো। এহন আমার কিছুই নাই। আইজ রাতে মিডাই (গুড়) দিছিলো ওই বাড়ির এক মহিলা। তা দিয়াই সেহরির সময় খাইছিলাম। আমারে যদি দয়া করে একটা কার্ড দিতাইন তাহলে খুবই খুশি অইতাম। স্বামী আমার অনেক আগেই গাড়ির তলে পইরা মইরা গেছে। একটা পুলা (আঞ্জু) কে মাইনসে পিটাইয়া মাইরা ফেলাইলো। আরেক পুলা মাইনসের বাড়িতে টুকটাক কাম কইরা খায়। হের দিনই চলেনা। আমারে দেখবো কেমনে! আমি এহন অসহায়। আমারে কেউ দেহেনা বাবা! ১৯ মে শনিবার এ প্রতিবেদককে সামনে পেয়ে আহাজারি করে এভাবেই পেশ করলেন আফজান বিবি নামে এক বয়স্ক নারী। আইডি কার্ড অনুযায়ী তার বয়স প্রায় ৭৭ বৎসর চলছে। বর্তমান বসবাস ৩নং কৈচাপুর ইউনিয়নের দর্শারপাড় গিয়াস উদ্দিন হাজীর বাড়ির পূর্ব পাশে। ভাঙ্গা খঁড়ের ঘরে বসবাস করেন তিনি। সাথে তার মাদ্রাসা পড়ুয়া ৮ বৎসরের ইয়াতিম নাতীকে নিয়ে থাকেন। ঝড় বৃষ্টি রোদ্রের মাঝে প্রতিনিয়ত লড়াই করে টিকে রয়েছেন এই বৃদ্ধা আফজান বিবি। ঘর নেই, দরজা নেই। আছে শুধু মাথা গুজার এক টুকরো জায়গা। তাও নিজের নয়। গিয়াসউদ্দিন হাজীর দেয়া। এই আফজান বিবির বিষয়ে হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাকির হোসেনকে অবগত করলে তিনি তার জন্যে একটা কার্ডের ব্যবস্থা করবেন বলে জানান। আফজান বিবিকে যোগাযোগ করতে বলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.