তিন শতাধিক দোকান উচ্ছেদ,,, চকরিয়া পৌরশহরে ঝাডু হাতে পরিচ্ছন্ন অভিযানে মেয়র, ইউএনও এবং ওসি

এ,কে,এম বেলাল উদ্দীন, চকরিয়া:

চকরিয়া পৌর শহরকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে নিজেই ঝাড়ু হাতে ফুটপাতে পরিচ্ছন্ন অভিযানে নেমেছেন খোদ পৌর মেয়র, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ওসি।
পবিত্র মাহে রামজানকে সামনে রেখে পথচারী ও যাত্রীদের যানজট থেকে রক্ষা করতে চকরিয়া পৌরশহরকে পরিস্কার- পরিচ্ছন্ন রাখতে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও পৌর কর্তৃপক্ষ।চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান, পৌরসভা মেয়র মো.আলমগীর চৌধুরী,চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী অভিযানের নেতৃত্ব দেন। ৭ এপ্রিল সোমবার সকাল ১০টার দিকে চকরিয়া পৌরশহরে এ অভিযান পরিচালিত হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পৌর শহর পরিচ্ছন্ন রাখতে নিজেই ঝাড়ু হাতে নিয়ে সড়কে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন অভিযানের আনুষ্টানিকতা শুরু করেন । পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে পৌরশহরে গড়ে উঠা স্থানীয় ও ফুটপাত থেকে ভাসমান তিন শতাধিক দোকান উচ্ছেদ করা হয়।
সরেজমিন দেখাগেছে, চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার পৌরশহরে রয়েছে তিন লাইন বিশিষ্ট সড়ক। দূরপাল্লার গাড়িগুলো বক্স রোড দিয়ে চললেও স্থানীয় গাড়ি গুলি চলাচল করে বক্সের সাইড রোড দিয়ে। কিন্তু বক্স রোডের দু’পাশের সড়কের উপর কয়েকশ ভাসমান দোকানের পাশাপাশি মার্কেট ঘেসে সড়কের ফুটপাতের উপর স্থায়ী দোকান নির্মাণ করা হয়।সড়কে যত্রতত্র পরিবহণ পার্কিং করায় যানজট নিত্যকার ঘটনা হয়ে উঠে পৌরশহরে।
এতে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয় পথচারীদের।
পবিত্র মাহে রমজানকে সামনে রেখে উপজেলা প্রশাসন ও পৌর কর্তৃপক্ষ শহরকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ও যানজটমুক্ত রাখতে সোমবার সকালে তিনশতাধিক দোকান উচ্ছেদ করা হয়।যানযট নিরসন ও পরিষ্কার পরিচন্নতা রাখতে উপজেলা প্রশাসন, চকরিয়া থানা ও চকরিয়া পৌরসভা, স্কাউট গ্রুপ, আনসার ভিডিপির যৌথ উদ্যোগে এ পরিষ্কার পরিচন্নতা এবং ভাসমান দোকান উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়।
অভিযানকালে উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া পৌরসভার সচিব মাসউদ মোর্শেদ,পৌরসভার কাউন্সিলরথানা পুলিশের কর্মকর্তা,পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ড় কাউন্সির মোহাম্মদ রেজাউর করিম, কর্মকর্তাবৃন্দ ও কমিউনিটি পুলিশের সদস্য
,স্কাউট গ্রুপ টিম লিডার, আনসার ভিডিপির কর্মকর্তা।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন,পবিত্র রমজানে পৌরশহরে পথচারীদের চলাচলে কোন ধরণের বিঘ্ন সৃষ্টি না ঘটে এ নিয়ে অভিযান পরিচালনা করা হয়। যেকোনো উপায়ে পৌরশহরকে পরিচ্ছন্ন ও যানজটমুক্ত রাখতে প্রয়োজনে অভিযান অব্যহত রাখা হবে বলে তিনি ঘোষনা দেন।তিনি বলেন, পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সমিতির নেতাদের সাথে অচিরেই আলোচনাপূর্বক পুরোপুরি যানজট নিরসনে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবেও তিনি জানান।
পৌরপিতা আলমগীর চৌধুরী বলেন,জনগণের কষ্ট লাগবে সার্বিক প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.