আলীকদমে  ১৬ লক্ষ টাকাসহ তক্ষক ক্রেতা-বিক্রেতা আটক

বান্দরবান প্রতিনিধিঃ   বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার রেপারপাড়া বাজারে তক্ষক বিক্রয়ের সময় নগদ ১৬ লাখ টাকা সহ ক্রেতা-বিক্রেতাকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানিয়েছেন প্রত্যেক্ষদর্শীরা। শুক্রবার (৪ মে) বেলা সাড়ে ১১টায় উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের রেপারপাড়া বাজারের চৌধুরী মো. রফিকুল ইসলাম চৌধুরীর বাড়িতে লেনদেনের সময় খবর পেয়ে পুলিশ তাদের আটক করে।
তক্ষক, নগদ টাকা ও জড়িদের আটকের বিষয়টি আলীকদম থানা পুলিশ অস্বীকার করলে বান্দরবান পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার বলেন, লামা সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুস সালাম চৌধুরীকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।
আটককৃতরা হল, ক্রেতা রেপারপাড়া বাজার চৌধুরী মো. রফিকুল ইসলাম, বিক্রেতা চৈক্ষ্যং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সুজিত দাশ সোহাগ ও চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মো. খলিল। ক্রেতা রফিকুল ইসলামের সহযোগী আরো ১জনের নাম পাওয়া যায়নি। এসময় ১টি ১৬ ইঞ্চি লম্বা তক্ষক, নগদ ১২ লাখ টাকা ও ৪ লক্ষ টাকার ১টি চেক উদ্ধার করা হয়।
জানা গেছে, ১৬ ইঞ্চি সাইজের একটি তক্ষক বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে সুজিত দাশ সোহাগ ও খলিল বাজার চৌধুরী মো. রফিকুল ইসলামের বাড়িতে আসে। সেখানের লেনদেনের সময় খবর পেয়ে আলীকদম থানার পুলিশ হাতেনাতে নগদ টাকা, চেক ও ক্রেতা-বিক্রেতাকে আটক করে।
ঘটনাস্থলে এসে তক্ষক, নগদ টাকা ও বন্যপ্রাণী পাচারের সাথে জড়িতদের আটকের বিষয়ে আলীকদম থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক মো. আজমগীর বলেন, আমি ঘটনাস্থলে গিয়েছি। বিষয়টি গুজব। বিষয়টি চৈক্ষ্যং ইউপি চেয়ারম্যান মো. ফেরদৌস মীমাংসা করে দিবেন। কিন্তু প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা বলেন, আমাদের সামনে থেকে পুলিশ তক্ষক, নগদ টাকা সহ তক্ষক বেপারীদের আটক করেছে।
এবিষয়ে আলীকদম থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ রফিক উল্লাহ বলেন, আমি পরে জানাচ্ছি। পরে একাধিকবার তার মুঠোফোনে যোগাযোগ করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
ছবি… প্রতিকী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.