লামায় মরিচ খেতে নিখোঁজ যুবকের লাশ

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম,বান্দরবানঃ লামা উপজেলার ফাইতং ইউনিয়নের সোনাইছড়ি মরিচ খেতে যুবকের লাশ পাওয়া গেছে। নিহত ব্যক্তি জিয়াবুল করিম (৩৫) হারবাং পূর্ব নুনাছড়ির আবদুল মান্নানের ছেলে।

বাগানের গাছ কাটার বিরোধ নিয়ে প্রতিপক্ষের ধাওয়ায় নিখোঁজ হওয়ার ১১ঘন্টা পর গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় ওই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার হয়।

স্ত্রী দিলতাজ বেগম ও ছোট ভাই সাহেদ দাবী করেন, বাগানের গাছ কাটার বিরোধ নিয়ে স্থানীয় আজিজদের সাথে বিরোধ শুরু হয় জিয়াবুলের। এর জের ধরে গতকাল বৃহস্পতিবার ভোররাত দেড়টার দিকে হারবাংস্থ বাড়িতে গিয়ে জিয়াবুল করিমকে দা-কিরিচ নিয়ে ধাওয়া করে আজিজসহ কয়েকজন। ওই সময়ের পর থেকে নিখোঁজ থাকে আজিজ। সকাল ১১টার দিকে পথচারী থেকে খবর পাই লামার ফাইতং ইউনিয়নের সোনাইছড়িস্থ নিজ মরিচ খেতে জিয়াবুলের মরদেহ পড়ে রয়েছে। তার মুখে আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

লামা থানার ওসি মো. আনোয়ার হোসেন সাংবাদিককে মৃত যুবকের আত্মীয়দের উদ্বৃতি দিয়ে বলেন, বাগানের গাছ বিক্রি নিয়ে মায়ের সাথে অভিমান করে জিয়াবুল বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। তার শরীরে আঘাতের কোন চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তবুও মরদেহ ময়নাতদন্ত করতে বান্দরবান সদর হাসপাতার মর্গে পাঠানো হয়েছে। চিকিৎসকের প্রতিবেদনে হত্যার আলামত পেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে। আপাতত থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.