মুুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও পুরষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন

????????????????

চকরিয়া অফিস:
কক্সবাজারের কৃতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও পুরস্কার বিতরণ, অভিভাবক সমাবশে অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী স্কুল এন্ড কলেজের হলরুমে স্কুলের সভাপতি ও লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল করিম সেলিমের সভাপতিত্বে ও স্কুলের সহকারি শিক্ষক মোহাম্মদ মিনার ও ফাতেমা আক্তারে সঞ্চালনায় সম্পন্ন হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, জেলা পরিষদের সদস্য, চট্টগ্রামস্থ চকরিয়া সমিতির সভাপতি লায়ন কমর উদ্দিন আহমেদ।
এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন, জেলা আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী সদস্য ও বরইতলী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সফল চেয়ারম্যান এটিমএম জিয়া উদ্দিন চৌধুরী জিয়া, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক ও সাবেক ছাত্রনেতা জামাল উদ্দিন জয়নাল, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ফজলুল করিম সাঈদী। প্রধান আলোচকের ব্যক্তব্য দেন, শিক্ষক উপদেষ্ঠা মো. মামুনুল হক।
এসময় আরো বক্তব্য দেন, লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা কাইছার, মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী স্কুল এন্ড কলেজের প্রধান উপদেষ্ঠা ও লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নেছেরা বেগম, সাবেক এমইউপি সামসুল আলম, মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী স্কুল এন্ড কলেজের পরিচালনা পরিষদের নির্বাহী পরিচালক মিজবাউল করিম মো. মিরাজ, সদস্য মুরাদুল করিম সিফাত, সাবেক চকরিয়া উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা মো. সৌরভ, ইউনিয়ণ আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক আজাহার উদ্দিন।
মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেন বাঙ্গালী স্কুল এন্ড কলেজের শিক্ষকদেও মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, মাছুমা জান্নাত মিনা, সাহিদা পারভিন জিনাত, মরজিনা আক্তার, মিনার উদ্দিন, দিললুবা খানম নাজনিন, হাসনা জান্নাত মনি, মোহাম্মদ মনির, মনোয়ারা বেগম। বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে অতিথিরা বিজয়ীদেও মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।
বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে অতিথিরা বলেন, দিন বদলের যে প্রতিশ্রæতি দিয়ে বতর্মান সরকার ২০০৮ সালে অষ্টম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতায় এসেছিল তার সিংহভাগই বাস্তবায়ন করেছে। মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের দল হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সরকার দেশের আপামর জনসাধারণের জীবনমান উন্নয়নে প্রত্যেকটি খাতে যেমন বিদ্যুৎ, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, কৃষি, যোগাযোগ, নারীর ক্ষমতায়ন, কর্মসংস্থান, আইসিটিসহ প্রতিটি খাতে যথাযথ কর্মপরিকল্পনার মাধ্যমে উন্নয়নকে গতিশীল করছে। বর্তমান সরকারের দেয়া প্রতিশ্রæতি রক্ষা করেছে এবং ভবিষ্যতে রক্ষা করে চলবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস। মৌলিক চাহিদার মধ্যে খাদ্য অন্যতম। আর বর্তমান সরকার খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের ক্ষেত্রে শতভাগ সফল। ২০১২ সালের পর বাংলাদেশকে চাল আমদানি করতে হয়নি বরং এখন রপ্তানি করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.