চকরিয়ায় বসতভিটা থেকে উচ্ছেদে হামলা বিধবার বসতঘরে আগুন দেয়ার অভিযোগ!

এম জিয়াবুল হক,চকরিয়া:
চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের উত্তর হারবাংস্থ গোলাম ছোবহান মিয়ার ঘোনা এলাকায় সাজেদা বেগম নামের এক বিধবা নারীর বসতঘর আগুনে পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনা ঘটেছে। বসতভিটা থেকে উচ্ছেদের জন্য স্থানীয় সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আলম ও তার ছেলে বাহাদুর আলমের নেতৃত্ব দুর্বৃত্তরা গতকাল বুধবার ভোর রাতে ওই নারীর বসতঘরে আগুন দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিধবা নারী সাজেদা বেগম। গতকাল দুপুরে চকরিয়া প্রেসক্লাবে উপস্থিত হয়ে সাংবাদিকদের কাছে বসতঘর পুড়ে দেয়ার বিস্তারিত কাহিনী তুলে ধরেছেন ভুক্তভোগী।
অভিযোগে ওই এলাকার মৃত সোলতান আহমদের স্ত্রী সাজেদা বেগম জানান, ইউনিয়নের উত্তর হারবাং গোলাম ছোবহান মিয়ার ঘোনা এলাকায় তাঁর বসতভিটার জায়গাটি জবরদখল করতে বেশ কবছর ধরে নানাভাবে অপচেষ্ঠা চালিয়ে আসছে একই এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তি সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল আলম ও তাঁর ছেলে বাহাদুর আলম। ওই ঘটনার জের ধরে সর্বশেষ মঙ্গলবার সকালে অভিযুক্তরা ভাড়াটে লোক দিয়ে প্রথমে তার বসতঘরটি গুড়িয়ে দেয়। এরপর গতকাল বুধবার ভোর রাতে তারা পুনরায় ঘরটি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে।
ভুক্তভোগী বিধবা নারী সাজেদা বেগম অভিযোগ করে জানান, কিছুদিন আগে অভিযুক্তরা হামলা চালিয়ে বসতভিটার অন্তত ৪ লক্ষ টাকার গাছ কেটে নিয়ে গেছে। ওইসময় গাছ কাটার ঘটনায় বিচারের আশ্বাস দিয়ে অভিযুক্ত সাবেক চেয়ারম্যানের ছেলে বাহাদুর আলম, স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি মুজিব তার কাছ থেকে একটি চেকে বাধ্য করে দস্তখত নিয়ে ৩লাখ ১০ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। সর্বশেষ গতকাল বুধবার সকালে বসতঘরে আগুন দেয়ার পর অভিযুক্তরা ওই বিধবা নারীকে এলাকা থেকে তাড়িয়ে দিয়েছে। এ ঘটনায় সাজেদা মামলা করবেন বলে জানান।
অভিযোগ অস্বীকার করেছেন অভিযুক্ত সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল আলম। তিনি মুঠোফোনে দাবি করেন, জায়গাটি তাঁর। ওই নারীকে তিনি সেখানে থাকতে দিয়েছিলেন। আগুন দেয়ার ঘটনাটি পরিকল্পিত। তাকে ফাঁসাতে এসব তৈরী করা হচ্ছে। তবে তিনি অভিযোগের ব্যাপারে বিস্তারিত কথা মোবাইলে না বলে সাক্ষাত বলবেন বলে কথা দেন। #

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.