ফাইতংয়ে এক মহিলাকে লাঞ্চিত করার অভিযোগ

চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়ার সীমান্তবর্তী পার্বত্য বান্দরবান জেলার লামা উপজেলার ফাইতংয়ে গাছ ব্যবসায়ী কর্তৃক এক নিরীহ নারীকে লাঞ্চিত করার অভিযোগ উঠেছে। ১২ জুন সকালে ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদে এ ঘটনা ঘটে।
ভুক্তভোগী নারী মনোয়ারা বেগম জানান,ফাইতং ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ড নোয়াপাড়ার ১৯৮০/৮১ সালের ১৬২ নং বন্দোবস্তি মূলে জায়গার মালিক ছিদ্দিক আহমদের ছেলে মঞ্জুর আলমের কাছ থেকে তার স্বামী সাইদুল ইসলাম রুবেল ২০১২ সালে ৪০ শতক জমি ক্রয় করেন এবং শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলে রয়েছেন। মালিকানা সূত্রের তাহারা উক্ত জায়গায় বাগান সৃজন করে বিভিন্ন প্রজাতির গাছের চারা রোপন করেন এবং পরিচর্যার মাধ্যমে গাছগুলোকে বড় করে বিক্রয়ের উপযোগী করে তুলেন। তার পরিচর্যাধীন গাছের প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়ে পাশ্ববর্তী প্রতিবেশীর। প্রতিবেশী তার মালিকানাধীন ৫০-৬০টি বড় বড় গাছ কেটে নিয়ে বিক্রি করে দেন চকরিয়ার লক্ষ্যারচর ছিকলঘাটের গাছ ব্যবসায়ী ইলিয়াছকে। এ সূত্রে ইলিয়াছের সাথে ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদে শালিস বৈঠকে বসার কথা। বৈঠকে বসার জন্য ফাইতং ইউনিয়ন পরিষদে গেলে গাছ ব্যবসায়ী ইলিয়াছ মহিলাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে করতে মারধর ও লাঞ্চিত করেন। এ ঘটনায় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সহ কয়েকজন লোক এগিয়ে এসে মহিলাকে রক্ষা করে নিরাপদ স্থানে নিয়ে যায়।
এ বিষয়ে ভুক্তভোগী মনোয়ারা বেগম, হামলাকারী ইলিয়াছ কর্তৃক লাঞ্চিত হওয়ায় প্রতিবাদ জানিয়ে অপরাধীকে বিচারের আওতায় আনার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.