চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন-২০২১ প্রতীক বরাদ্দের শুরুতেই পৌরবাসীর বিস্ফোরণ ধ্বনি ‘নারিকেল গাছ’

চকরিয়া(কক্সবাজার) প্রতিনিধি :

নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুসরণে আসন্ন ১১এপ্রিল চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। উক্ত নির্বাচনে নাগরিক কমিটির ব্যানারে জনগনের মনোনীত মেয়দ পদে স্বতন্ত্র হিসেবে প্রার্থী হয়েছেন জনবান্ধব বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও দানবীর, বর্তমান ৬নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মো.জিয়াবুল হক।২৫ মার্চ বৃহস্পতিবার ছিলো প্রতীক বরাদ্দের দিন। এদিন সকাল থেকেই প্রতীক পেয়ে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নেমে পড়েছেন পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীরা। নির্বাচনী প্রতীক পাওয়ার পর পুরোপুরি নির্বাচনী আমেজ তৈরী হয়েছে পৌরসদর জুড়ে । এরই আলোকে নারিকেল গাছ তথা জিয়াবুল হকের সমর্থনে ১ থেকে ৯ নং ওয়ার্ডের স্ব-স্ব এলাকায় তুমুল করতালি ও স্লোগানের মধ্য দিয়ে মানুষের স্বতস্ফূর্ততা জানান দিয়েছে হাজারো আমজনতার ঢল।নির্বাচন কমিশনের বিধি অনুসারে দুপুর ২টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত জিয়াবুল হকের সমর্থকরা মিছিলে মিছিলে পৌরশহরে বিভিন্ন ওয়ার্ডের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

সরজমিন দেখামেলে,চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে নাগরিক কমিটি মনোনীত স্বতন্ত্র মেয়র পদপ্রার্থী জিয়াবুল হক ‘নারিকেল গাছ’ প্রতীক পাওয়ার পর থেকেই মিছিলের প্রস্তুতি নেয় মেয়র পদপ্রার্থী জিয়াবুল হকের সমর্থকরা। বিকেলে একযোগে তারা অানন্দ মিছিল বের করলে এতে সাধারণ ভোটাররাও যোগ দিতে থাকে। ফলে প্রতিটি ওয়ার্ডে হাজারো জনতার ঢল নামে।

এদিকে প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর নারিকেল গাছের সমর্থনে পৌরসভার ১নম্বর ওয়ার্ডের কাজির পাড়া, আমান পাড়া, আবদুল বারি পাড়া,শমসের পাড়া লক্ষ্যারচর, তরছ পাড়া,২নং ওয়ার্ডের হালকাকারা মৌলভীরচর,জালিয়া পাড়া, জনতা মার্কেট চত্ত্বর,৩নং ওয়ার্ডের তরছঘাট,কসাই পাড়া,জলদাস পাড়া,৪ নম্বর ওয়ার্ডের ভরামহুরী,গ্রামীণ ব্যাংক চত্বর, বাটাখালী,৭নং ওয়ার্ডের হাসেম মাস্টার পাড়া, কাসেম মাস্টার পাড়া,লালমিয়া সদর পাড়া,৮নং ওয়ার্ডের কোচপাড়া হয়ে থানা রাস্তার মাথা,বায়তুশরফ রোড, ৯নং ওয়ার্ডের ভাঙ্গারমুখ,দিগরপানখালী,মৌলবি পাড়া, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে বিশাল বহরের আমজনতা তুমুল করতালি ও বিস্ফোরণ ধ্বনি ‘নারিকেল গাছ’ স্লোগানে উপজেলা পরিষদের প্রদান সড়কসহ বিভিন্ন অলিগলি ও মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে।

মিছিল পরবর্তী কথা হয় পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের ভোটার কামাল উদ্দিন বলেন, ‘বর্তমান সময়ে ভোটাররা ভোটের প্রতি বিমুখ হয়ে গেছে। এই নির্বাচনে আশা করছি ভোট দিতে পারব। কারণ মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হক দীর্ঘদিন ধরে আমাদের কাছে আসছে। করোনাকালে তাঁর অবদান আমরা ভুলতে পাব না। তিনিই তখন আমাদের বাড়িতে এসে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন। এর প্রতিদান এই ভোটে আমরা তাকে দিবো।’

৮নং ওয়ার্ডের আবু সালাম বলেন, ‘মেয়র পদপ্রার্থী জিয়াবুল হক নারিকেল গাছ প্রতীক পাওয়ায় নির্বাচনের আচরণবিধি মেনে আমরা নিজ উদ্যোগে মিছিল বের করেছি। কারণ গত পাঁচ বছর চকরিয়া পৌরসভায় কি উন্নয়ন হয়েছে। তা আমরা শুধু কাগজে-কলমে দেখেছি। বাস্তবে তার কোন সুফল আমরা ভোগ করতে পারিনি। তাই এবার নতুন মেয়রের হাতে পৌরসভার দায়িত্ব দিতে চাই। প্রত্যকদিন আমরা ভোটারদের স্বপ্রণোদিত হয়ে পাড়া-মহল্লায় জিয়াবুল হকের পক্ষে ভোট প্রার্থনা কবর।’

সচেতন ভোটার আমান উদ্দিন বলেন, ‘দীর্ঘদিন পর জিয়াবুল নির্বাচনে মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে ভোটের আমেজ ফিরিয়ে এনেছে। আজ দেখলাম অনেক সমর্থক ও ভোটাররা তার পক্ষে মিছিল বের করেছে। কিন্তু বেহাল রাস্তায় ধুলোর কারণে ঠিক মতো মিছিলও করতে পারছে না তারা।’

উল্লেখ্য, আগামী ১১ এপ্রিল চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে প্রথম বারের মতো ইভিএম মেশিনের মাধ্যমে ভোট অনুষ্টিত হবে। এই নির্বাচনে মোট ভোটার রয়েছে ৪৮ হাজার ৭২৪ জন। তন্মধ্যে পুরুষ ভোটার রয়েছে ২৫ হাজার ৮৯৯ জন এবং মহিলা ভোটার রয়েছে ২২ হাজার ৮২৫জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.