নিভৃতে নিসর্গে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে কায়াকিং


আবিদ আল হাসানঃ
নিভৃতে নিসর্গ তে কায়াকিং: হয়ে যান একদিনের মাঝি!
চকরিয়া ও লামা পাহাড়ের বুক চিরে বয়ে চলেছে মাতামুহুরি নদী। মৃদুমন্দ বাতাসে মাতামুহুরির স্বচ্ছ জলে নিজেই যদি চালাতে পারেন ছোট্ট একটি নৌকা, তবে কেমন হয়? প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে সঙ্গে নিয়ে ইচ্ছেমতো নৌকা চালানোর শখ পূরণ করতে পারেন এবার খুব সহজেই। কক্সবাজারে প্রথমবারের মতো কায়াকিং করার সুযোগ নিয়ে এসেছে কায়াকিং অ্যাডভেঞ্চার চকরিয়া।

“কায়াকিং”আসলে কী – হালকা কিন্তু ব্যালেন্সড নৌকায় কায়াকে লাইফজ্যাকেট পরে উঠলে আপনার হাতে ধরিয়ে দেওয়া হবে বৈঠা। ব্যস! এবার আপনি নিজেই মাঝি! ইচ্ছেমতো ঘুরতে পারবেন সবুজ পাহাড় দেখতে দেখতে। কায়াক চালাতে বেগ পেতে হয় না একেবারেই। কেবল নৌকা ডানে ও বামে নেওয়ার কৌশল রপ্ত করলেই নির্ভেজাল আনন্দে ঘুরতে পারবেন মাতামুহুরির বুক জুড়ে।
সপ্তাহে ৭ দিনই কায়াকিংয়ের ব্যবস্থা থাকছে। সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত দুইজন করে ঘুরতে পারবেন মাথামুহুরি নদীতে। এজন্য প্রতি ঘণ্টায় গুণতে হবে ২০০ টাকা। কম খরচের জন্য থাকছে ১৫ মিনিট, ৩০ মিনিটের ভ্রমণের সুযোগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.