চকরিয়ার বসতবাড়িতে ঢুকে হামলা ও ভাংচুর,আহত 

চকরিয়া প্রতিনিধি:
চকরিয়া পূর্বশত্রুতার জেরধরে বসতবাড়িতে ঢুকে হামলা ও ভাংচুরের ঘটনা ঘটেছে। হামলাকালে
একই পরিবারের ৩জনকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। লুট করে নিয়ে গেছে নগদ টাকা ও মালামাল। হামলায় আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। ১৯
ফেব্রুয়ারী দুপুর ১টার দিকে উপজেলার ভেওলা মানিকচর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ছনুম্মারঘােনা
এলাকায় ঘটেছে এ ঘটনা। এ ঘটনায় বদিউল আলমের স্ত্রী শাহিনা আক্তার বাদী হয়ে থানায় একটি লিখিত এজাহার দায়ের করা হয়েছে।
অভিযােগে জানাগেছে, ভেওলা মানিকচর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ছনুম্মারঘােনা এলাকায় প্রতিবেশী মাে: হােসেনের পুত্র মাে: খােকন ও জামাল গংয়ের সাথে পূর্বশত্রুতা চলে আসছিলাে বাদী পক্ষের
বদিউল আলম গংয়ের সাথে। এর জেরধরে বাদী পক্ষের বাড়িতে নগদ টাকা রক্ষিত করে রাখার খবরে জুমার নামাজ অবস্থায় অভিযুক্ত একই এলাকার মাে: হােসেনের পুত্র মাে: খােকন ও জামাল
উদ্দিনের নির্দেশে তার ছেলে মাে: কাজল, মাে: হােসেনের ছেলে কামাল উদ্দিন, মাে: রাজুর ছেলে সােহেল, মাে: খােকনের ছেলে মাহিন ও বাপ্পী ও কামাল উদ্দিনের ছেলে হায়দার মিয়াসহ ভাড়াটিয়া
আরাে ৪/৫জন বাহিনী নিয়ে বাড়িতে ঢুকে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়। হামলায় গৃহকত্রী বদিউল আলমের স্ত্রী শাহিনা আক্তার (৩৭)কে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। ঘটনার খবর পেয়ে
বশির আহমদের ছেলে মাে: মনির (২৫) এগিয়ে গেলে তাকে কুপিয়ে জখম করে। এরপর তার বড় ভাই আবুল কাসেম (৩৬) এগিয়ে গেলে তাকেও বেধম প্রহার করে গুরুতর আহত করেছে। ঘটনাকালে বসতবাড়িতে ভাংচুরের পাশাপাশি আলমারিতে রক্ষিত নগদ ১লক্ষ টাকা ও একটি মােবাইল সেট লুট করে নিয়ে যায়।
অভিযােগ উঠেছে; হামলাকারী অভিযুক্ত এলাকায় নানা অপরাধের সাথে জড়িত। তারা নিরীহ মানুষের বাড়ি ঘরের জমি জবর দখলসহ বিভিন্ন অপকর্মে জড়িয়ে পড়েছে।
চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মােহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ঘটনার বিষয়ে এখনাে কেউ লিখিত অভিযােগ দেয়নি। অভিযােগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.