দুর্গম পাহাড়ি এলাকার কৃতি সন্তান অংচিং মারমা এখন ম্যাজিস্ট্রেট

এ.কে.এম রিদওয়ানুল করিম  কক্স টিভি ঃ

বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের ৩৮ তম ব্যাচে প্রশাসন ক্যাডারে সুপারিশ প্রাপ্ত হয়ে বান্দরবন জেলার লামা উপজেলাধীন ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দূর্গম ত্রিডেবা এলাকার অংচিং মারমা বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ে সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পদে ১৪ ফেব্রুয়ারি তারিখ যোগদান করেছেন।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগ নিয়ে অনার্স মাস্টার্স শেষ করে বিসিএস পরীক্ষা প্রশাসন ক্যাডারে উত্তীর্ন হন।

তাঁর এলাকার একাধিক ব্যক্তি জানান, তিনি ৩৮ তম বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারে যোগদান করে ক্যাডার জগতে দীর্ঘদিনের জট খুলে লামাবাসির মুখ উজ্জ্বল করেছেন। অংচিং মারমা লামাবাসির অহংকার।
অংচিন মারমা ম্যাজিস্ট্রেট হওয়ার খবরে এলাকাবাসীর মাঝে খুশির বন্যা বয়ে যায়।
অংচিং মারমা ফেইসবুকে লিখেছেন-
আমার এই ছোট্ট জীবনটা অনেক মানুষের সহযোগিতা ও ভালবাসায় গড়া। তাঁদের জন্যই আমার এতদূর আসা। তবে আমার প্রতিটি পদক্ষেপ, ক্যারিয়ার সিলেকশন ও জীবন লক্ষ্য নির্ধারণে যাদের জন্য চিন্তাটা সবচেয়ে বেশি প্রভাবক হিসেবে কাজ করে তারা হল আমার এলাকার এই অতি সাধারণ জনগণ।

আজ থেকে ২১ বছর আগে যখন আমি প্রায় ১৫ কিলোমিটার পথ হেটে নিকটতম প্রাইমারি স্কুলে পড়তে বাড়ি ছেড়ে এসেছিলাম, তখন থেকে চেয়েছিলাম সাধারণ জনগণের সানিধ্যে থেকে কাজ করতে। আজ খুব বেশি অর্জন না হলেও প্রশাসন ক্যাডারে চাকরির সুবাদে আমার দেশের আপামর সাধারণ জনগণের সানিধ্যে আসার সুযোগ এসেছে। আমি জানিনা অকাতরে আমার প্রতি ভালবাসা বিলিয়ে দেয়া এসব মানুষের জন্য কী করতে পেরেছি, কী করতে পারব। দোয়া করবেন যেন আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব অক্ষুণ্ণ রাখতে দেশ ও জনগণের সেবা করতে পারি।

৩৮তম বিসিএস পরীক্ষা পাসের খবর শোনার পরদিন অংচিন মারমার নিজ এলাকা ত্রিশডেবা পাড়াবাসী কর্তৃক আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের একটি ভিড়িও ফুটেজ ভাইরাল হয়েছে। এতে এলাকাবাসী তাকে যে কতটা ভালবাসে তা ভাষায় প্রকাশ করার মত নয়।

উল্লেখ্য, তিনি ইতোপূর্বে অংচিন মারমা ব্যাংকার হিসেবে নিয়োগ পেয়ে লামা জনতা ব্যাংকে এক্সিকিউটিভ অফিসার পদে কর্মরত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.