চকরিয়ার ঢেমুশিয়ায় ৪৯একর জমি জবর দখল  নিয়ে আতংকে ৫শতাধিক পরিবার

বিশেষ প্রতিবেদক,চকরিয়া
চকরিয়ার ঢেমুশিয়া হেতালিয়াপাড়ায় ৫শতাধিক পরিবারের ৪৯.৯৩একর জমি দখল নিয়ে মালিক পক্ষের মাঝে ক্ষোভ ও আতঙ্ক বিরাজ করছে। এলাকার কিছু চিহ্নিত ভূমিদস্যু, অস্ত্রবাজ ও সন্ত্রাসী বাহিনীর রীতিমত হুমকিতে রয়েছে তারা। এমনকি বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ আদালত, কক্সবাজারে মামলা নং অপর ২০২/২০ দায়ের করলে, বিজ্ঞ আদালতে জমিতে স্থিতাবস্থায় বজায় রাখার নির্দেশ দেন এবং উভয়পক্ষকে নোটিশ জারি করেন। তা উপেক্ষা করেও হুমকি অব্য্যাহত রেখেছেন ভূমিদস্যুরা।
অভিযোগে জানাগেছে, চকরিয়া উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের হেতালিয়াপাড়ার সোলতান আহমদের ছেলে মুহিবুল্লাহ, মৃত টুনু মিয়ার ছেলে আবুল কালাম, মৃত মনিরুজ্জামানের ছেলে রুহুল আমিন, মৃত তজু মিয়ার ছেলে জাহাঙ্গীর, মৃত ছালেহ আহমদের ছেলে জসিম উদ্দিন, মুহিবুল্লার ছেলে মো: আজিজ, মোজাফ্ফর আহমদের ছেলে মো: মোজাম্মেল ও মৃত জলিল আহমদের ছেলে বেলাল উদ্দিনসহ ৫শতাধিক পরিবারের ভোগদখলীয় ঢেমুশিয়া মৌজার বিএস খতিয়ান নং ২৪০, আর এস খতিয়ান নং ২১৩, বিএস ২৪০ নং খতিয়ানের স্থিত সমস্ত দাগের আন্দর ৪৯.৯৩একর জমি রয়েছে। তাদের পূর্বপুরুষসহ দীর্ঘকাল ধরে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখলেও রয়েছেন। ঢেমুশিয়ার প্রায় ৫শত পরিবারের পক্ষে উক্ত জমির রক্ষণাবেক্ষণ, দেখবাল,চাষাবাদসহ ইত্যাদী কাজের জন্য ৩শত টাকার ননজুডিসিয়াল স্ট্যাম্পে অঙ্গীকারনামা মূল্যে ১৫ সদস্য একটি পরিচালনা কমিটি গঠন করা হলেও বিশেষ দায়িত্ব দেয়া হয় একই এলাকার মৃত ওলামিয়ার পুত্র নুরুল আলম ও মৃত হাজী নুর আহমদের পুত্র আবদুল হামিদ প্রকাশ মনুকে। চুক্তিমুলে তাদেরকে ২০০৮সন থেকে ২০১১সনের জন্য (৩বছর) ক্ষমতা দেয়া হলে উক্ত ৩বছর জমি মালিকদেরকে যথাযথভাবে লাগিয়তের টাকা সঠিকভাবে বন্ঠন করেন। কিন্তু বহিরাগত আরো ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী ও দখলবাজ তাদের দুইজনের সাথে যুক্ত করে উক্ত জমির প্রতি লুলোপদৃষ্টি পড়ে যায়। ফলে ২০১১সনের পর হতে ২০১৯ সাল পযর্ন্ত প্রায় ৮বছর দখলে উক্ত ৪৯.৯৩একর জমি অবৈধভাবে জবর দখলে রেখে জমি মালিকদেরকে কোন ধরণের লাগিয়তের টাকা পরিশোধ করেনি। দীর্ঘ ৮বছরে মালিকপক্ষের জমি লাগিয়তের অন্তত ৩৮লক্ষ ৩৫হাজার ৯৫০ টাকা আত্মসাত করেছে। তারা উক্ত জমি জবর দখলে রাখতে চকরিয়া উপজেলার কোরাখালী,কোনাখালী, সাহারবিল, বদরখালীসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে ভাড়াটিয়া অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী এনে জমি মালিকদের প্রতিনিয়ত হুমকি ধমকি অব্যাহত রেখে, এমনকি জমি মালিক পক্ষের লোকজনকে হত্যা করে লাশ গুম করার হুমকিও দিয়ে আসছে। সর্বশেষ বিগত ২০২০ সন থেকে ৫শত পরিবারের পক্ষে আমরা জমি মালিকগন অবৈধ দখলদারদের কবল হইতে জমি উদ্ধার করে পূণরায় শান্তিপূর্ণ ভোগ দখলে নেন। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে থানা ও আদালতে অসংখ্য মামলা-মোকাদ্দমা রয়েছে। ভূক্তভোগী জমি মালিকরা প্রশাসনের কাছে আইনী সহায়তা চেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.