বরইতলীতে প্রবাসীর বাড়ীতে হামলা, নারীসহ আহত ৩, সংবাদের প্রতিবাদ

গত ৮জানুয়ারী’২১ইং দৈনিক গণসংযোগ ও কক্সবাজার ৭১ পত্রিকায় “চকরিয়া বরইতলীতে প্রবাসীর বাড়ীতে হামলা ভাংচুর, নারীসহ আহত ৩” শীর্ষক শিরোনামে প্রকাশিত সংবাদটি আমাদের দৃষ্টি গোচর হয়েছে। সংবাদের সাথে বাস্তবতার কোন মিলনাই। সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ভিত্তিহীন ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত। সংবাদে উল্লেখিত মৃত জিয়াবুল হকের পুত্র সৌদি আরব ফেরৎ জুবাইরুল ইসলাম একজন দখলবাজ ও ভূমিদস্যু। আপন বোনের পৈত্রিক জমি অবৈধভাবে জবর দখলে নিতে বোন, ভগ্নিপতি ও ভাগিনাদের নানাভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে যাচ্ছে। এমনকি জুবাইরুল ইসলাম সৌদি আরবে থাকাবস্থায় মোবাইল ফোনে এবং ভয়েস রেকর্ড পাঠিয়ে অশ্লীল ভাষা সহকারে হুমকি দিয়েছে। সম্প্রতি উপজেলার বরইতলী ইউনিয়নের ৪ নং ওয়ার্ডের উপরপাড়া এলাকার জমি জবর দখলে নিতে নতুন কৌশলে মেতে উঠে। সেই কৌশলে নতুন দালান বাড়ি নির্মাণে রাজমেস্ত্রী হিসেবে যাবতীয় দেখবালের দায়িত্ব দেন আপন ভাগিনাকে। তার আলোকে প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার ছাদ ঢালাই নির্মাণ সামগ্রী ভাড়ায় ঘর নির্মাণকাজ চালিয়ে যাচ্ছেন ভাগিনা। নির্মাণকাজে মেস্ত্রী ও শ্রমিকের অনেক টাকা বেতনও বাকি রয়েছে। কিন্তু অতর্কিতভাবে বিনাইস্যুতে বোনের পৈত্রিকভাবে প্রাপ্ত জমি না দেওয়ার অজুহাতে ভগ্নিপতির উপর অতর্কিত হামলা চালায় সৌদি ফেরৎ জুবাইরুল ইসলামসহ তার লালিত লোকজন ও পরিবারের সদস্যরা। তাকে বাঁচাতে আমরা দুই পুত্র এগিয়ে আসলে আমাদেরকেও মারধরে আহত করে। পরে আমরা হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা গ্রহণ করি। কিন্তু ঘটনাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে সৌদি ফেরৎ জুবাইরুল ইসলামের স্ত্রী হামিদা বেগমকে কথিত বাদী সাজিয়ে থানায় উল্টো মিথ্যা ও সাজানো অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগে কথিত স্বর্ণালংকার লুট ও ভাংচুরের কোন ঘটনা না ঘটলেও তাতে স্বর্ণালংকার লুটের কথা বলা হয়েছে। অথচঃ তার স্ত্রীর কাছে রক্ষিত দু’য়েক ভরি স্বর্ণ বাড়ি নির্মাণের জন্য বিক্রি করে দিয়ে স্বর্ণালংকার বিহীন হয়ে পড়েছেন। যা থানার তদন্তকারী অফিসার উপপরিদর্শক মুজিবুর রহমান সরে জমিনে তদন্ত করে উপস্থিত স্বাক্ষীদের স্বাক্ষ্যে মিথ্যা প্রমাণিত হয়েছে। বর্তমানেও নির্মানাধীন ঘরের কাজে আমাদের দেড় লক্ষাধিক টাকার ছাদ ঢালাই নির্মাণ সামগ্রী মজুদ রয়েছে। তাই প্রকাশিত উক্ত মিথ্যা ও ভিত্তিহীন সংবাদ নিয়ে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আহবান জানাচ্ছি এবং সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

প্রতিবাদকারী: মামুনুর রশীদ, সাইফুল ইসলাম, মোঃ হোছাইন,আরিফুল ইসলাম, শরিফুল ইসলাম পিতা মোঃ হোছন, সাং উপরপাড়া ৪ নং ওয়ার্ড, বরইতলী ইউনিয়ন, চকরিয়া, কক্সবাজার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.