সুরাজপুর-মানিকপুরে আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের মিলন মেলায়-রেজাউল করিম

নিজস্ব  প্রতিবেদক

পড়ন্ত বিকেলে মৃদু গরম আবহাওয়া। মাতামুহুরী নদীর পানির ঢেউয়ের তালে তালে মাথা উঁচু করে আছে দুইধারে পাহাড়। প্রকৃতির অপরূপ চেহারা যেন নিজের মতো করে মেলে ধরেছে। ভরে গেছে সবুজ গাছ গাছালিতে। প্রকৃতি হাতের নাগালে ধরা দেয়, এমন দৃশ্য মুগ্ধ করেছে প্রকৃতি প্রেমিদের। প্রকৃতির এক অপার সৌন্দর্যের রূপ-রহস্যে ঘেরা চকরিয়া উপজেলার সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের “নিভৃত নিসর্গ” নামক পর্যটনে।

২০২০ সালকে বিদায় এবং নতুন বছরকে বরণ করতে কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক চকরিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান রেজাউল করিমের নেতৃত্বে উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে মিলিত হয়েছে সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের “নিভৃত নিসর্গে”।

৩১ডিসেম্বর বিকাল তিনটায় সুরাজপুর-মানিকপুর পর্যটনে প্রধান অতিথি ছিলেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম। বিশেষ অতিথি, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান এসএম জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি সরওয়ার আলম, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জামাল উদ্দিন জয়নাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ও চকরিয়া প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মিজবাউল হক, সাবেক ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবছার উদ্দিন মাহমুদ, সাবেক ছাত্রলীগের সভাপতি আমির উদ্দিন বুলবুল, সুরাজপুর-মানিকপুর আওয়ামীলীগ নেতা বাদল শর্মা, কাজল মেম্বার, মোকারম, বাহাদুর আলম, কাকারা আওয়ামীলীগ নেতা নাজেম উদ্দিন, কৃষকলীগ নেতা মোজাম্মেল হক, মাতামুহুরী থানা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি টিপু সোলতান, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আকিত হোসেন আকিব, ফরিদুল আলম, নওশাদ আলী, মাহফুজ আলম।

এসময় প্রধান অতিথি রেজাউল করিম বলেন, দেশের উন্নয়ন কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার বিকল্প কোনও নেতৃত্ব নেই। তাই একটি মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তর ও উন্নয়ন এগিয়ে নিতে হলে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব অপরিহার্য বলে মন্তব্য করেন রেজাউল করিম।
তিনি আরও বলেন, মাতারবাড়ী গভীর সমুদ্র বন্দর এবং পদ্ধা সেতু দেশের চেহারা পাল্টে দেবে। এই সরকারের আমলে নতুন পর্যটন শিল্প গড়ে উঠছে। সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নের পর্যটনকে সারাদেশে পরিচিতি লাভ করতে হবে। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের যে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে তাদেরকে সমাধান করারও স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সরকারের প্রতি আহবান জানান তিনি।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী বলেন, সুরাজপুর-মানিকপুর ইউনিয়নে নতুন পর্যটন গড়ে উঠেছে। বর্তমান সরকার পর্যটন বান্ধন সরকার। এখানে সরকারকে অর্থ বরাদ্দ দেওয়ার আহবান জানান। উপজেলা পরিষদ থেকে দশ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়ার প্রতিশ্রতি দেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.