আমার অপরাধ ও কিছুটা দায়মুক্তি..ইউএনও উখিয়া

এ.কে.এম রিদওয়ানুল করিম ঃ উখিয়া উপজেলায় যোগদান করার পর থেকেই চেষ্টা করছি মানুষের যতটা সম্ভব সহযোগিতা করার। করোনা ভাইরাসের প্রকোপের প্রথম দিকের ঘটনা,একদিন স্থানীয় ইউপি সদস্য ফোনে জানালেন তার এলাকায় করোনা রোগী পাওয়া গিয়েছে এবং এটা নিয়ে এলাকাবাসী খুবই আতংকিত। রাত তখন ৯/৯.৩০।
আমি জেনেই রওয়ানা দিলাম। গিয়ে জানতে পারলাম ওই ব্যক্তি কক্সবাজার থেকে এসেছেন এবং তার শরীর খুবই খারাপ। পরের দিন ওনার উখিয়া উপজেলার UHFPO মহোদয়ের সহযোগিতায় করোনাভাইরাসের পরীক্ষা করা হয়।আল্লাহর অশেষ রহমতে ফলাফল নেগেটিভ আসে।
আমি যখন করোনা রেজাল্ট আসার আগ পর্যন্ত তাদের বাড়ি লকডাউন করব, তখন দেখি ঝুপড়ি ঘরে ৫ টি পরিবার থাকে। জালিয়াপালং ও হলদিয়াপালং এর মাঝামাঝি হওয়াতে প্রায়ই সরকারি সাহায্য থেকে বাদ পড়ে যায়। উপজেলা থেকে তখনই স্থানীয় ইউপি সদস্যের মাধ্যমে খাদ্য সহযোগিতা প্রদান করি। তখন বলেছিলাম সরকারি বরাদ্দ পেলে ঘর মেরামতের জন্য টিন দিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.