কুতুবদিয়ায় কৃত্রিম জলাবদ্ধতা নিরসনে দ্রুত পদক্ষেপ নিলেন ইউএনও

কুতুবদিয়া প্রতিনিধি ঃ
দ্বীপ-কুতুবদিয়া উপজেলা সদরের উত্তর বড়ঘোপ গ্রামের জনজীবনে শুরু হয়েছে চরম দূর্ভোগ। মাত্র একদিনের ভারি বর্ষণে পানিতে সয়লাব হয়ে গেছে অফিস-আদালত, রাস্তঘাট, বিভিন্ন প্রতিষ্টান ও শতশত ঘরবাড়ি। এমনকি বহু বসতবাড়িতে বন্ধ হয়ে গেছে রান্নাবান্না। উপজেলার প্রধান আযম সড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে পানি চলাচলের জন্য স্থাপিত পুল-কালভার্টগুলো কেন্দ্রিক বাড়িঘর গড়ে ওঠায় বৃষ্টি হলেই পুরোগ্রাম কৃত্রিম জ্বলাবদ্ধতায় রুপ নেয়। এমনকি বৃষ্টি থেমে গেলেও পানি সরার ব্যবস্থা না থাকায় হাটা-চলাচল করতে হয় কাঁদাজ্বল পেরিয়ে। তাই বিষয়টি দ্রুত সুরাহা করতে জ্বলাবদ্ধতা থেকে রক্ষা করার দাবি ভূক্তভোগি অর্ধ লক্ষাধিক গ্রামবাসির।

এমন দাবীর প্রেক্ষিতে বড়ঘোপসহ গ্রামের একাধিক পয়েন্টে গিয়ে পানি চলাচল প্রতিবন্ধকতা অপসারনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ও দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জিয়াউল হক মীর।

ইউএনও জিয়াউল হক মীর জানান, ব্যক্তি স্বার্থে কৃত্রিম জলাবদ্ধতা সৃষ্টির অভিযোগ পাওয়ার পর জরুরি ভিত্তিতে জলাবদ্ধতা নিরসনে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়। তিনি আরো বলেন, গত ১৬/০৬/২০ তারিখ রাত থেকে গতকাল (১৭/৬/২০) সারাদিন কুতুবদিয়ায় প্রবল বর্ষণ হয়। গতকাল (১৭/০৬/২০) উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট অভিযোগ আসে বিভিন্ন অসাধু ব্যক্তি নিজের স্বার্থে পানির স্বাভাবিক গতিপথ বন্ধ করে রাখায় প্রবল বর্ষণের সময় কুতুবদিয়ার বিভিন্ন স্থানে কৃত্রিম জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয় এবং এতে অনেক মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়েন। খবর পেয়ে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করে গতকালই (১৭/০৬/২০) জলাবদ্ধতা নিরসন করা হয়। তিনি সবাইকে এ ব্যাপারে সচেতন হওয়ার আহবান জানান।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.