চকরিয়ার বিএমচরে দোকানে ঢুকে ইফতার সামগ্রী রাস্তায় ছুড়ে ফেললেন চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর

চকরিয়া প্রতিনিধি
চকরিয়া উপজেলার ভেওলামানিকচর ইউনিয়নের (বিএমচর) স্টোর ষ্টেশনে অতর্কিত অবস্থায় একটি চটপটির দোকানে ঢুকে বিক্রির জন্য তৈরী করা ইফতার সামগ্রী রাস্তার উপর ছুড়ে মেরে নষ্ট করে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যান এস এম জাহাঙ্গীর আলম এর বিরুদ্ধে। এমনকি দোকানের মালিক মোঃ ইসমাইল (১৮)কেও লাঠি দিয়ে পিঠিয়েছে। গত ১৪ মে’২০ইং দুপুর ১২ টার দিকে ঘটেছে এ ঘটনা।
অভিযোগে জানাগেছে, পবিত্র রমজানে দরিদ্র মানুষের দাবী-আবদারের আলোকে সীমিত পরিসরে ও দুরত্ব বজায় রেখে ইফতার সামগ্রী বিক্রয়ের জন্য বিএমচর স্টোর ষ্টেশনে নিজ পরিচালিত চটপটির দোকানটি খোলেন বিএমচর ৮নং ওয়ার্ডের পাহাড়িয়াপাড়া গ্রামের মোজাম্মেল হকের পুত্র মোঃ ইসমাইল। ইফতার সামগ্রী তৈরীকালে আকর্ষ্মিকভাবে স্থানীয় চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম পরিষদের চৌকিদার নিয়ে এসে দোকানের দরজা খোলে সব ইফতার সামগ্রী রাস্তার উপর ছুড়ে মারেন এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ইসমাইলকে বেধম মারধর করেন। ইফতার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে; ২কেজি ৫০০ গ্রাম ছোলা (চনা), পিয়াজু তৈরীর ৮কেজি খেসারীর ডাল, ২৪০ পিস ছমুছা ও জিলাপি তৈরীর সিরাপ। চেয়ারম্যান চলে যাওয়ার পর স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। ব্যবসায়ী ইসমাইল জানান, তার পরিবারের সাথে চেয়ারম্যানের কোন বিরোধ ছিলনা। কেন তার উপর এ নির্যাতন ও দোকানে হামলা চালালো কিছু বুঝতে পারছেননা। তিনি আরো জানান, বেতুয়াবাজার, স্টোর ষ্টেশন, বহদ্দারকাটা পূর্ব ও পশ্চিম ষ্টেশনে অসংখ্য দোকান খোলা আছে। অথচঃ এসব দোকানে কিছু করেনি, শুধু তার দোকাানে কেন করল? তিনি এবিষয়ে মামলার প্রস্তুতি নিয়েছেন বলে জানান এবং প্রশাসনের কাছে আইনী সহায়তা চেয়েছেন।
এবিষয়ে চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জানান, ইফতার সামগ্রী হলেও করোনার লকডাউনে দোকান খোলায় এ অভিযানটি চালিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.