চকরিয়ায় ১২ লক্ষ টাকার ত্রাণ ও ইফতার বিতরণ করে ২২ শত পরিবারে হাসি ফুটালেন আ.লীগ নেতা রেজাউল করিম

চকরিয়ায় ১২ লক্ষ টাকার ত্রাণ ও ইফতার বিতরণ করে ২২ শত পরিবারে হাসি ফুটালেন আ.লীগ নেতা রেজাউল করিম সেলিম

এ.কে.এম রিদওয়ানুল করিম ঃ করোনাভাইরাস থেকে নিরাপত্তা ও মহামারী আকার ধারণ রোধে দেশের প্রতিটি মানুষ যখন নিজ গৃহে অবস্থান করছে, ঠিক ওই সময়ে দিনে এনে দিনে খাওয়া মানুষ গুলোর জীবনে নেমে এসেছে দুশ্চিন্তা ও হতাশার ছায়া। অনেক মধ্যবিত্ত ও নিম্নবিত্ত পরিবারে চলছে তীব্র খাদ্য সংকট। সহায়হীন এই মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াতে নিজের অর্থায়নে ত্রাণ বিতরণ করেছেন চকরিয়া লক্ষ্যারচর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি তরুণ সমাজসেবক ও বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী রেজাউল করিম মোঃ সেলিম।
লকডাউনের শুরু থেকে তিনি সাধারণ পরিবারে হ্যান্ড সেনিটাইজারসহ ১ হাজার পরিবারে মাস্ক বিতরণ করছেন।
৩ এপ্রিল ২০২০ তারিখ ১ম ধাপে লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে বাছাইকৃত অসহায়, নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের তালিকা করে ১ হাজার পরিবারের মাঝে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। এর আগেও তিনি যে কোন দূর্যোগে অসহায় মানুষের পাশে সেবা দিয়ে চকরিয়ার একজন তরুণ মানবসেবক হিসেবে আলোচনায় আসেন। এর ধারাবাহিকতায় এবারও বৈশ্বিক মহামারী করোনা দূর্যোগে নিজ এলাকার পাশাপাশি ঘর বন্ধী লক্ষ্যারচর ইউনিয়নের দিনমজুর ও অসহায় মানুষ গুলোর কথা ভেবে মানবতার ডাক দিয়ে স্বেচ্ছায় নিজ অর্থায়নে বিতরণ করেছেন প্রতি পরিবারে চাউল, ডাল, লবণ, পেঁয়াজসহ রকমারী প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী । এসব খাদ্য সামগ্রী পেয়ে অসহায় মানুষগুলো রেজাউল করিম সেলিমের জন্য দোয়া করেছেন।
এছাড়া তিনি একই ক্যাটাগরিরর একই ইউনিয়নের ১২ শত পরিবারে মাহে রমজানের ইফতার সামগ্রী চনা বুট, মুড়ি, সেমাই, চিনি, দুধ, তেল ইত্যাদি বিতরণ করেন। তাছাড়াও কেউ খাদ্য সংকটে থাকলে খবর পেলেই পৌছে দিচ্ছেন প্রয়োজনীয় খাদ্য সামগ্রী।

ত্রাণ ও ইফতার বিতরণের সময় প্রতিবারই উপস্থিত ছিলেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু।

এই বিষয়ে রেজাউল করিম সেলিম জানান , বিশ্বের এই ক্রান্তিলগ্নে সেচ্ছায় দেশের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছি । অসহায়ের পাশে দাঁড়াতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করছি। আমি মানুষের জন্য রাজনীতি করি। ব্যক্তিগত ফান্ড থেকে এ পর্যন্ত ১২ লক্ষ টাকা খরচ করে ২২ শত পরিবার ত্রাণ ও ইফতার বিতরণ করেছি। আর ১ হাজার মানুষকে মাস্ক বিতরণ করেছি। তিনি মহান আল্লাহর কাছে শোকরিয়া জ্ঞাপন করে বলেন যা করেছি আলহামদুলিল্লাহ। এবার ঈদ উপলক্ষে ৫ শত পরিবারে শাড়ি ও ৫শত পরিবারে লুঙ্গি বিতরণ করার উদ্যোগ নিয়েছি। ইনশাল্লাহ ঈদের আগে বিতরণ করব। আমার এলাকার একটি মহল আমার জনপ্রিয়তা সহ্য করতে না পেরে নানা মুখি ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। আল্লাহ তাদের হেদায়ত করুক। যতই ষড়যন্ত্র হোক না কেন, আমি জনগণের জন্য কাজ করে যাব। আমি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের একজন সৈনিক হয়ে মানুষের ভালবাসা নিয়ে মানুষের পাশে থাকব, এটাই আমার অঙ্গিকার।
তিনি নিজ নিজ উদ্যোগে বিত্তবানদের যার যার সাধ্যমতো সহযোগিতার হাত বাড়ানোর আহবান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.