কুতুবদিয়ায় ২২ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে ইউএনও

ফাজলিহা সাববিন কাফিঃ
নভেল করোনা ভাইরাসে লকডাউন ঘোষনার পর কুতুবদিয়া দ্বীপের সাথে গত ২৬ মার্চ থেকে বাংলাদেশের মূল ভূ-খন্ডের যোগাযোগ বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। তারই ধারাবাহিকতায় বাইরের যে কোন লোক দ্বীপে প্রবেশ করলে তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়। নারায়নগঞ্জ জেলা সম্পূর্ণ লকডাউনের আওতায় রেখেছে প্রশাসন।

৭ এপ্রিলমঙ্গলবার দুপুরে বড়ঘোপ ইউনিয়নের পিলট কাটা খালে লবণ বাহি ট্রলার যোগে ৯ মাঝি মাল্লা ও যাত্রী হিসেবে ১১জন তাবলীগ জামায়াতের সদস্য এবং নারায়নগঞ্জ এলাকার বাসিন্দা লেমশীখালী ইউনিয়নের চৌমুহনী বাজারে অবস্থান করা ২ জনসহ একদিনে ২২জনকে বড়ঘোপ বাজারের ডাক বাংলোর কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছে ইউএনও জিয়াউল হক মীর। কোয়ারেন্টাইনে থাকা লোকজনের শরীরে করোনা ভাইরাসের আলামত আছে কি না তা পরীক্ষা নিরীক্ষার পর মুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন ইউএনও। ইউএনও অারো জানান পুলিশের সহায়তায় হোটেল সমুদ্র বিলাসে স্থাপিত কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠিয়েছি। তাদের বিষয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.