অনাহারী মানুষের ফোন পেয়ে রাতেই খাবার পৌছে দিলেন কুতুবদিয়ার ইউএনও

এ.কে.এম রিদওয়ানুল করিম ঃ

৪ এপ্রিল ২০ রাত ৮ টার দিকে কুতুবদিয়ার ত্রাণকর্তা খ্যাত উপজলা নির্বাহী অফিসার জিয়াউল হক মীর মোবাইল ফোনে একটি কল আসে। অপর প্রান্ত থেকে জানায়: স্যার, আমি এক চায়ের দোকানদার। করোনা ভাইরাসের কারণে এখন কর্মহীন, সংসার চালাতে পারছি না। কিন্তু চক্ষু লজ্জায় কারো কাছে সাহায্য ও চাইতে পারছি না। স্যার, শুনেছি আপনি অনেক মানুষকে সহায়তা করছেন। আমাকে কিছু সহায়তা করলে খুবই উপকার হবে। কথোপকথনে লোকটির নাম, ঠিকানা জেনে নিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ইউএনও অফিসের স্টাফ দিয়ে লোকটির বাড়িতে খাবার পাঠান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা । খাবারের প্যাকেটে যা ছিল- ১) চাল-১০ কেজি ২) মসুরের ডাল- ১ কেজি, ৩) সয়াবিন তেল-১ লিটার, ৪) লবণ- ১ কেজি ৫) পেঁয়াজ- ১ কেজি, ৬) আলু-২ কেজি, ৭) লাইফবয় সাবান- ১ টি।
খাবার পেয়ে কর্মহীন ঐ ব্যক্তি ইউএনও স্যারকে দুহাত তুলে অাল্লাহর কাছে দোয়া করেন। তিনি বলেন,(তার ভাষায়) এই রহম টিনু ছার অাঁরা অার নও দেহি, অাল্লাহ টিনু ছাররে অারো বরও হরুক।

এদিকে এমন অসহায় সময়ে সামান্য সহায়তা করতে পেরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজেকে ধন্য মনে করছেন। তিনি সারা কুতুবদিয়ার অসহায় মানুষের মাঝে অলিতে গলিতে ঘুরে ঘুরে ত্রাণ পৌছে দিয়ে করোনা দূর্যোগে মানুষের ত্রাণকর্তার খ্যাতি অর্জন করেছেন।
তিনি সবার উদ্যোশ্যে বলেন, আপনারা বাড়িতে থাকুন, আপনাদের পাশে আছে উপজেলা প্রশাসন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.