চকরিয়ায় পত্রিকার হকারদের পাশে মানবতার হাত বাড়ালেন কাউন্সিলর জিয়াবুল হক

চকরিয়ায় পত্রিকার হকারদের পাশে মানবতার হাত বাড়ালেন কাউন্সিলর জিয়াবুল হক

 মোঃ নাজমুল সাঈদ সোহেল

চকরিয়া(কক্সবাজার)প্রতিনিধি ঃ

চকরিয়ায় মাঠপর্যায়ে পত্রিকা বিক্রেতা ২০ জন হকারও মহামারী করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। পরিবেশকরা (এজেন্ট) জাতীয়, আঞ্চলিক ও স্থানীয় পর্যায়ের কোন পত্রিকা না আনায় এসব হকার পত্রিকা বিক্রি করতে পারছেন না। এতে একসপ্তাহ ধরে চরম খাদ্যসংকটে পড়েছেন ২০ জন হকারের পরিবার। এই অবস্থায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান এবং পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর জিয়াবুল হক গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় পৃথকভাবে এসব হকারের পাশে দাঁড়িয়েছেন। খাদ্য সহায়তা পেয়ে এতে এসব হকার পরিবারে হাসি ফুটেছে। চকরিয়া হকার সমিতির সভাপতি মো.মনির উদ্দিন বলেন, ‘পত্রিকা বিক্রি করতে না পারায় আমাদের পরিবারে চরম খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। বিষয়টি আমরা সাংবাদিকের মাধ্যমে উপজেলা প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিদের জানাই। খবরটি শোনা মাত্র ইউএনও এবং পৌর কাউন্সিলর জিয়াবুল হক তাৎক্ষণিক আমাদেরকে পৃথকভাবে চাল, ডাল, তেল, পেঁয়াজসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী আমাদের হাতে তুলে দেন। এতে অন্তত বেশ কয়েকদিন আমাদের পরিবার সদস্যদের খাবার নিয়ে দুশ্চিন্তা করতে হবে না। পাশাপাশি সাংবাদিক ভাইদেরও ধন্যবাদ জানাচ্ছি দুর্দিনে আমাদের পাশে থাকার জন্য।’ খাদ্যসংকট দূর করতে প্রথমবারের মতো এগিয়ে আসা কাউন্সিলর জিয়াবুল হক বলেন, ‘প্রতিদিন তাদের মাধ্যমে আমরা খবরের কাগজ হাতে পাই। এই দুর্দিনে তাদের পাশে থাকাটাও বেশ জরুরী মনে করে তাৎক্ষণিকভাবে ২০ হকারের পরিবারের জন্য খাদ্যসামগ্রীর ব্যবস্থা করি। ইউএনও নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, ‘কর্মহীন ২০ জন হকারের দুর্দিনের সংবাদটি সাংবাদিকের মাধ্যমে জানার পর পরই ত্রাণের ব্যবস্থা করা হয়। একইসঙ্গে তারা যাতে নিয়মিতভাবে সরকারী সহায়তা পায় সেজন্য পৌরসভার মেয়রকেও বিশেষ ভিজিএফ কার্ডের ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। যাতে হকারগুলোর পরিবার সদস্যরা একবেলাও অভুক্ত না থাকেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.