গৃহবন্দী অনাহারীর মাঝে চাল বিতরণ করেছেন অালোর প্রতিভা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

কক্সবাজার সদরের ঝিলংজায় করোনাভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে বাধ্যতামূলক হোম কোয়ারেন্টিনে (গৃহবন্দী)থাকা অসহায় মানুষগুলোর পাশে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে হাজির হয়েছেন কক্সবাজার জেলার সামাজিক সংগঠন আলোর প্রতিভা।

২৬ শে মার্চ (বৃহস্পতিবার)স্বাধীনতা দিবসে আলোর প্রতিভা সংগঠনের সভাপতি মোঃ মনির ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ শামীম এর নেতৃত্বে যুবলীগ নেতা জুয়েল সিকদার কে সাথে নিয়ে সদর  উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের প্রায় ১০০ শত অসহায় মানুষের বাড়িতে ২কেজি করে চাল বিতরণ করেন সামাজিক সংগঠন আলোর প্রতিভার সদস্যরা।

তাছাড়াও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে তা পালন করতে উৎসাহিত এবং জরুরী কাজ ছাড়া বাহিরে না গিয়ে বাড়িতে অবস্থান করতে আহবান জানান।

আলোর প্রতিভা সভাপতি মোঃ মনির বলেন,আলোর প্রতিভা কক্সবাজার জেলার একটি বৃহত্তম সামাজিক সংগঠন। এই সংগঠনের লক্ষই হচ্ছে সামাজিক কর্মকান্ডে সম্পৃক্ত থাকা।দেশের এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতে সমাজের খেটে খাওয়া মানুষগুলোকে না খেয়ে থাকতে হয়। তাই এসব খেটে খাওয়া মানুষ ও অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে প্রতিবারের মতো  এবারও আলোর প্রতিভা সংগঠন এই উদ্যোগ গ্রহন করেছে।

আমাদের সংগঠনের প্রত্যেক সদস্য অক্লান্ত পরিশ্রম করে এই কাজগুলো সম্পন্ন করছেন তাই তাদেরকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।এবং এর ধারা অব্যাহত রাখার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ।আমাদের সামর্থ্য  অনুযায়ী আমরা এগিয়ে এসেছি এবং এসময় সমাজের প্রতিটি বিত্তবান ব্যাক্তিদেরও অসহায় পরিবার গুলোর পাশে এগিয়ে আসা উচিৎ।

এসময় যুবলীগ নেতা জুয়েল সিকদার বলেন, কোটি কোটি টাকা নয় একটা সুন্দর মন থাকাই যথেষ্ট।এবং এই মহৎকাজে তাকে আহবান করায় আলোর প্রতিভা সংগঠনের সভাপতি,সম্পাদকের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

এদিকে জাতির ক্রান্তিকালে অসহায় অনাহারির পাশে দাঁড়ানোর মত এমন মহৎ কাজকে সাধুবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন  ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা ও সামাজিক সংগঠন জুভেনাইল ভয়েস ক্লাবের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও কক্স টিভির চেয়ারম্যান এ.কে.এম  রিদওয়ানুল করিম। বিবৃতিতে তিনি বলেন,

যেখানে কোটি কোটি টাকার মালিক সম্পদশালীরা এগিয়ে অাসছে না এক মুটাে খাবার নিয়ে গরীব অসহায় বস্তিবাসীর মাঝে । সেখানে ছাত্র সংগঠন  অালোর প্রতিভা মানবিক কল্যাণ ফোরামের এমন মহৎ কাজকে সাধুবাদ না জানিয়ে পারছি না। জাতির এমন করোনা দূর্যোগে অাপনাদের এমন কাজ মহাজনদের শিক্ষার এক মাইলফলক হয়ে থাকবে বলে মনে করেন । তিনি ধন্যবাদ ও শুভ কামনা জানিয়েছেন স্বেচ্ছাসেবী এস এমডি মনির মিয়াসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.