সৌদি থেকে ফিরেছেন কক্সবাজারের করোনা আক্রান্ত নারী, পরিবারের সবাই কোয়ারাইন্টাইনে

 

কক্সবাজারে প্রথম একজন করোনা ভাইরাস জীবাণু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা মুসলিমা খাতুন সৌদি আরব থেকে ফিরেছেন। গত ১৩ মার্চ তিনি ওমরা হজ্ব করে দেশে ফিরেন তিনি। তার পুত্র কক্সবাজার মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ সোলাইমান সিবিএনকে এই তথ্য জানান।
তিনি জানান, ওমরা থেকে বাড়ি ফিরেই মুসলিমা খাতুন অসুস্থ হয়ে পড়েন। তিনি একই সাথে সর্দি, জ্বর, কাশি ও গলা ব্যথায় ভুগেন। তাকে ১৮ মার্চ
কক্সবাজারে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকেরা তার করোনা সন্দেহ করেন।

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ডা. মোহাম্মদ মহিউদ্দিন সিবিএন-কে জানিয়েছেন, মোসলিমা খাতুন কয়েকদিন আগে থেকে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলো। তার রোগের লক্ষণে করোনা ভাইরাস মনে হওয়ায় তার শরীরের স্যাম্পল পরীক্ষার জন্য ঢাকার আইইডিসিআর এর ল্যাবে পাঠানো হয়েছিল। মঙ্গলবার ২৪ মার্চ বেলা ১২ টার দিকে তার রিপোর্ট পাঠানো হয়। সেখানে তার রিপোর্টে করোনা ভাইরাস জীবাণু পজেটিভ পাওয়া যায়।

করোনা আক্রান্ত ওই মহিলার পুত্র কক্সবাজার মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ মোহাম্মদ সোলাইমান এই প্রতিবেদককে বলেন, আমাদের পরিবারের প্রায় সবাই আমার মায়ের সংস্পর্শে এসেছিলাম। এ কারণে সবাই আশঙ্কার মুখে রয়েছি। তাই আমাদের সবাই হোম কোয়ারাইন্টাইনে রয়েছি।

মায়ের চিকিৎসা সম্পর্কে তিনি বলেন, ওনার চিকিৎসা নিয়ে আমাদের করার কিছু নেই। সরকার যেভাবে তার চিকিৎসা ব্যবস্থা সেভাবে হবে। সাথে আমাদের বিষয়টিও সব সময় পর্যবেক্ষণে রাখার জন্য সরকারের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রতি আকুতি জানাচ্ছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.