চকরিয়ায় মহাসড়কে ট্রাক-হানিফ বাস মুখোমোখি সংর্ঘষ নিহত-২, আহত-১৬

আবদুল মজিদ,চকরিয়া:
চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ায় মিনিট্রাক-হানিফ চেয়ারকোচ মুখোমোখি সংর্ঘষে ২জন নিহত ও ১৬জন যাত্রী আহত হয়েছে। নিহতরা দূর্ঘটনা পতিত দুইটি গাড়ীর চালক। গত ১৯ ফেব্রুয়ারী (বুধবার) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার খুটাখালী নতুন মসজিদ চারা বটতলী নামক এলাকায় মর্মান্তিক এ দূর্ঘটনা ঘটেছে।
দূর্ঘটনায় নিহত হানিফ চেয়ারকোচ বাস চালক মোহাম্মদ লিটন (৩৩) ভোলা জেলার চরফ্যাশন থানার মৃত শাহজাহানের পুত্র এবং নিহত মিনিট্রাক চালক মো: জয়নাল আবেদীন (২৫) চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের উত্তর হারবাং চেয়ারম্যানঘাটা গ্রামের মো: মোর্শেদের পুত্র বলে জানাগেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ সূত্রে জানায়, খুটাখালী বাজারে মহাসড়কের উপর একটি ইজিবাইক (টমটম) চাকা নষ্ট হয়ে পড়ে থাকলে উক্ত ইজিবাইক গাড়ীটি হাইওয়ে পুলিশের গাড়ীর সাথে বেধে মালুমঘাট ফাঁড়িতে নিয়ে আসার পথে চকরিয়ামুখী একটি দ্রæতগামী ট্রাক (নং নারায়ণগঞ্জ ট-০২-০৩২৬) নতুন মসজিদ এলাকায় পুলিশের গাড়ী ওভারটেকিং করতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বিপরীত দিক থেকে আসা কক্সবাজারগামী হানিফ চেয়ারকোচ বাসের (ঢাকা মেট্রো ব-১৪-০৭৯১) সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। দূর্ঘটনায় ট্রাকটি দুমড়ে মুচড়ে গেলেও হানিফ বাসটি সড়কের পাশ্ববর্তী বৈদ্যুতিক খুটির সাথে ধাক্কা খেলে যাত্রীরা বড় ধরণের ক্ষয়ক্ষতি থেকে রক্ষা পায়। দূর্ঘটনাস্থলেই দুই গাড়ীর চালক প্রাণ হারায়। এতে কমবেশি আহত হয়েছে বাসের ১৬জন যাত্রী। হাইওয়ে পুলিশ ও স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করান।
চকরিয়ার মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশের ইনচার্জ (ইন্সপেক্টর) মোর্শেদুল ইসলাম বলেন, ট্রাক-হানিফ বাস মুখোমোখি সংর্ঘষে ঘটনাস্থলেই ২ চালক নিহত হয়েছে এবং আহত হয়েছে বেশ কয়েকজন। লাশ দুইটি উদ্ধার করে হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি হেফাজতে আনা হয়েছে এবং স্ব-স্ব পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হচ্ছে। দূর্ঘটনা পতিত গাড়ী দুইটি পুলিশ ফাঁড়িতে জব্দ রাখা হয়েছে।তবে তিনি দালাল কর্তৃক গাড়ী ধাওয়াকে অস্বীকার করেন এবং সাইফুল নামে কোন দালাল কিংবা সোর্স নাই বলে জানান। কেউ পরিচয় দিলে তাকে পুলিশে সোপর্দ্দ করার আহবান জানিয়েছেন। ##

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.