ডুলাহাজারায় আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে অবৈধ বালু উত্তোলন, শীর্ষক সংবাদের প্রতিবাদ

গত ১৬জানুয়ারী’২০ইং দৈনিক আমাদের কক্সবাজার পত্রিকায় “ডুলাহাজারায় আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে অবৈধ বালু উত্তোলন, বাধা দেয়ায় হামলা, আহত ৫” শীর্ষক প্রকাশিত সংবাদটি আমাদের দৃষ্টি গোচর হয়েছে। সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ভিত্তিহীন কাল্পনিক ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত। সংবাদের সাথে বাস্তবতার কোন মিলনাই। প্রকৃত ঘটনা হচ্ছে; চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের মগছড়ারজোম এলাকায় মৃত মোজাম্মেল হকের স্ত্রী সিরাজ খাতুন (৭০) স্বামী জীবিত থাকাবস্থায় মেয়ে মনোয়ারা বেগমকে বগাচতর মৌজার সাড়ে ৩৩শতক জমি রেজিষ্ট্রি মূলে বিক্রয় করে দেন এবং জমি বিক্রির ওই টাকা নিয়ে জমি বিক্রেতা সিরাজ খাতুন স্বামীকে নিয়ে পবিত্র হজ্জও পালন করেন। কিন্তু মেয়ে মনোয়ারা বেগমকে জমি বিক্রি করে দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে অপরাপর মেয়ে সেতারা বেগম, মিনুন্নাহার বেগম, তার মেয়ে গোলতাজ বেগম, আবদু ছাত্তার হেলালীর পুত্র আল আমিন, আবদু ছাত্তার ও পুত্রবধু ইছমত আরাবেগমসহ মেয়ে-নাতি-নাতনীরা মিলে বয়োবৃদ্ধ সিরাজ খাতুনের উপর হামলার চেষ্টা চালায়। সম্প্রতি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে চকরিয়া থানায় মামলা নং জিআর ৪/২০ দায়ের করা হয়। মামলা করায় এবং এক মেয়েকে জমি করে দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মেয়ে ও নাতীরা সিরাজ খাতুনকে ১৪জানুয়ারী বিকেলে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে সন্ধ্যা ৭টার দিকে ডুলাহাজারা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জামাল হোছাইন চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) মনছুর আলমের নেতৃত্বে ডুলাহাজারা বাজারের তেলিপাট্টি রোডের মাথা থেকে সিরাজ খাতুন (৭০)কে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। কিন্তু সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে আদালতের ১৪৪ধারার মামলা করায় হামলা চালিয়ে একই পরিবারের নারীসহ ৫জনকে গুরুতর আহত করার যে কথা বলা হয়েছে তা সঠিক নয়। এছাড়াও সংবাদে মোক্তার আহমদের পুত্র আবদুল আজিজ হেলালীসহ অপরাপর ব্যক্তিগনের বিরুদ্ধে পাহাড়ের মাটি কাটা ও বালি উত্তোলনের উদ্দেশ্যে গাড়ী চলাচল অব্যাহত রাখার যে কথা বলা হয়েছে তা সঠিক নয়। আজিজের নেতৃত্বে বিগত ৫ বছর ধরে বগাচতর মৌজার মগছড়ার জোম এলাকার খতিয়ানী ও খাস জমির ছড়াখাল থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের যে কথা বলা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আমার মায়ের উপর হামলার ঘটনায় আমরা পূণরায় মামলার প্রস্তুতি নিয়েছি। তাই উক্ত মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদ নিয়ে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য আহবান জানাচ্ছি এবং সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
প্রতিবাদকারী- মনোয়ারা বেগম পিতা মৃত মোজাম্মেল হক
মগছড়ার জোম, ৭নং ওয়ার্ড, ডুলাহাজারা ইউনিয়ন,চকরিয়া,কক্সবাজার।##

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.