চকরিয়ায় নিজ বাগানবাড়িতে বেড়াতে গিয়ে বিদেশ প্রবাসীর উপর হামলা, আহত-৩, স্বর্ণালংকার লুট

চকরিয়া অফিস:
চকরিয়ায় নিজ বাগান বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে পরিকল্পিত হামলার শিকার হয়েছে প্রবাসী পরিবার। হামলায় জমি মালিক প্রবাসীর স্ত্রীসহ ৩জন গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় প্রবাসীর স্ত্রীর ব্যবহৃত বিপুল পরিমাণ স্বর্ণালংকার, টাকা ও মোবাইল সেট লুট (ছিনতাই) করা করা হয়েছে। ১৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের বাসষ্টেশনের পূর্বে পাশ্বে ঘটেছে এ ঘটনা। এনিয়ে জমি মালিকসহ স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
অভিযোগে জানাগেছে, হারবাং ষ্টেশনের সামান্য দক্ষিণ পূর্বপাশ্বে হারবাং মধ্যম নূনাছড়ি গ্রামের শফিক আহমদের স্ত্রী হোসনে আরা বেগম গংয়ের ৫০শতক বাগান বাড়ি জমি রয়েছে। তিনি থাকেন প্রবাসে (সৌদি আরবে)। সম্প্রতি দেশে বেড়াতে আসেন। এ সুযোগে পরিবারের সদস্য-অন্যান্য বোনদের নিয়ে বৃহস্পতিবার সকাল ৭টার দিকে বেড়াতে যান। কিন্তু জমি মালিক বিদেশ প্রবাসী বেড়াতে যাওয়ার পূর্বে থেকে খবর পেয়ে দীর্ঘদিন ধরে জমি জবর দখল চেষ্টায় থাকা ওই এলাকার মুফিজুর রহমানের পুত্র নাছির উদ্দিন খোকন, তার স্ত্রী শাহিনা আক্তার, ছেলে মো: তোসার ও এজাহার আহমদের পুত্র কহিনুর আক্তারসহ ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে পূর্বে থেকে ওৎপেতে থেকে পূর্বশত্রুতার জেরধরে পরিকল্পিত হামলা ও লুটপাট চালানো হয়েছে। ধারালো অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে চালানো হামলায় গুরুতর আহত হয়েছেন; জমি মালিক চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ড মধ্যম নূনাছড়ি গ্রামের শফিক আহমদের স্ত্রী হোসনে আরা বেগম (৩৪), একরামের স্ত্রী রৌশন আরা বেগম (২৯) ও আবদুল মালেকের স্ত্রী জন্নাত আরা বেগম (৪৫)। তন্মধ্যে জমি মালিক প্রবাসীর স্ত্রী হোসনে আরা বেগমকে এক পর্যায়ে মাথা লক্ষ্য করে আঘাতের মাধ্যমে প্রাণে হত্যার চেষ্টাও চালানো হয়েছে। ওই সময় তার কাছ থেকে গলায়,হাতে ও কানে থাকা প্রায় ২০ ভরি পরিমাণের অধিক বিদেশী স্বর্ণালংকার, নগদ ২৫ হাজার টাকা ও ব্যবহৃত এনড্রয়েড মোবাইল সেট লুট (ছিনতাই) করে নিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদেরকে আরো উন্নত চিকিৎসা গ্রহণের জন্য আশংখাজনক অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করেন।
স্থানীয় হারবাং ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম জানিয়েছেন, বাগানে বেড়াতে যাওয়া জমি মালিক ও প্রবাসী পরিবারের উপর পরিকল্পিত হামলা অত্যন্ত দু:খজনক। প্রকৃত পক্ষে ওই জমি অবৈধভাবে ভোগ দখলে নেয়ার জন্যই এ হামলা চালিয়েছে। ইতিপূর্বে ওই জমি মালিক হিসেবে হোসনে আরা বেগম গং এর ইউনিয়ন পরিষদের রায়/ডিক্রিও প্রচারিত হয়েছে। চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হাবিবুর রহমান জানান, ঘটনার বিষয়ে অবগত হয়েছে। লিখিত অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।##

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.