চকরিয়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে ২শতাধিক ভাসমান দোকান উচ্ছেদ ও লক্ষাধিক টাকা জরিমানা আদায়

হাসপাতাল সড়কে রোগি টানা হেচড়া করলে ২ বছরের জেল ঘোষণা

আবদুল মজিদ,চকরিয়া
চকরিয়া পৌরশহরে উপজেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে দুই শতাধিক ভাসমান দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে। মেয়াদত্তীর্ণ ওষুধ ও দোকানের সামনে মালামাল রাখার দায়ে বিভিন্ন প্রতিষ্টান থেকে ১লাখ ৮ হাজার ৬’শ টাকা জরিমানা আদায় করেছে। এসময় অবৈধভাবে গাড়ি পাকিং করায় দুটি গাড়ি জব্দ করা হয়। সোমবার বেলা ১২টা থেকে ৩টা পর্যন্ত চকরিয়া পৌরশহরে অভিযান পরিচালনা করেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী।
এসময় ভ্রাম্যমান আদালতের সাথে ছিলেন চকরিয়া উপজেলা প:প কর্মকর্তা ডা.শাহবাজ খান, পৌর সচিব মাসউদ মোর্শেদ, চকরিয়া থানার এসআই আবদুল বাতেনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ, উপজেলা সেনেটারি ইন্সেপেক্টরসহ উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।
চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নূরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন, পৌরশহরকে পরিচ্ছন্ন ও যানজটমুক্ত রাখতে দুই শতাধিক ভাসমান দোকান উচ্ছেদ করা হয়েছে। ওষুধের দোকানগুলোতে মেয়াদত্তীর্ণ ওষুধ রাখা এবং দোকানের সামনে অবৈধভাবে মালামাল রাখার দায়ে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্টান থেকে ১লাখ ৮ হাজার ৬’শ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এসময় তিনি মাইক্রোফোন নিয়ে স্থানীয়দের উদ্দেশ্যে বলেন, সরকারী হাসপাতাল সড়কে কোন দালাল দুর-দুরান্ত থেকে আসা রোগিদের টানা হেচড়া করলে, তা প্রমাণিত হলে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাথে সাথে ২ বছরের সাজা দেওয়া হবে।
এছাড়া পুরাতন বাস টার্মিনাল এলাকায় গাড়ির কাউন্টার বন্ধ রাখতে নির্দেশ প্রদান করা হয়। সড়কে যততত্র গাড়ি দাঁড় করিয়ে মাল লোড-আনলোড করার দায়ে দুটি গাড়ি জব্দ করা হয়েছে এবং পৌরশহরের আবাসিক হোটেল ডি-ফোর থেকে অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে ৬জন যুবক-যুবতীকে আটক করা হয়।
তিনি আরো বলেন, পৌরশহরে কোনভাবেই ভাসমান দোকান বসানো যাবেনা। পুরাতন বাস টার্মিনালে থাকা কাউন্টারগুলোকে অবশ্যই নিদিষ্ট বাস টার্মিনালে চলে যেতে হবে। এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.