চকরিয়ার ইউএনও শিবলী নোমান ও শিক্ষা কর্মকর্তা গুলশান জেলায় শ্রেষ্ঠ

আবদুল মজিদ,চকরিয়া:
কক্সবাজার জেলার আট উপজেলার মধ্যে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক-২০১৯ বাছাই প্রতিযোগিতায় জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষাবান্ধব ইউএনও নির্বাচিত হয়েছেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমান ও শ্রেষ্ঠ শিক্ষা কর্মকর্তা নির্বাচিত হয়েছেন চকরিয়া উপজেলা শিক্ষা অফিসার গুলশান আক্তার। জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক বাছাই কক্সবাজার জেলা কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো.কামাল হোসেন এবং বাছাই কমিটির সদস্য সচিব কক্সবাজার জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ শফিউল আলমের নেতৃত্বাধীন বাছাই কমিটি তাহাদের দুইজনকে গত ২৮ ডিসেম্বর’১৯ইং জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ শিক্ষাবান্ধব ইউএনও ও শিক্ষা কর্মকর্তা হিসেবে মনোনীত করে ইতোমধ্যে তা অনুমোদন দিয়েছেন। বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বাছাই কমিটির অন্যতম সদস্য কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো.আমিন আল পারভেজ।
এদিকে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমান জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষাবান্ধব ইউএনও ও শ্রেষ্ঠ শিক্ষা কর্মকর্তা নির্বাচিত হওয়ায় তাহাদেরকে অভিনন্দন জানিয়েছেন চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম, চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ ফজলুল করিম সাঈদী, চকরিয়া পৌরসভার মেয়র আলমগীর চৌধুরী, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মকছুদুল হক ছুট্টু, উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন হক জেসি চৌধুরী ও চকরিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি আবদুল মজিদ। অভিনন্দন জানিয়েছেন চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনের সকল বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারী, চকরিয়া উপজেলার ১৪৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সকল প্রধান শিক্ষক, সহকারি শিক্ষক, সকল প্রাথমিক বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা (এসএমসি) কমিটি।
স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমান চকরিয়া উপজেলা প্রশাসনে যোগদানের পর বদলে গেছে শিক্ষাব্যবস্থার আমুল পরিবর্তন ও সরকার প্রধান শেখ হাসিনার সুদক্ষ নির্দেশনার আলোকে তাদের সফল নেতৃত্বে এবং সুচারু দক্ষতায় প্রাথমিক শিক্ষার অগ্রগতি উন্নয়নে সারাদেশের সঙ্গে সম্প্রীতির মেলবন্ধন ঘটেছে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগে। তাঁর সহায়তায় ছিলেন চকরিয়া উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গুলশান আক্তার। যৌথ প্রচেষ্টার কারণে চকরিয়া উপজেলার ১৮টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার ১৪৫টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যেমন শিক্ষার সুন্দর পরিবেশ তৈরী হয়েছে, তেমনি বৈপ্লবিক পরিবর্তন ঘটেছে লেখাপড়ার মানন্নোয়নের ক্ষেত্রে। চকরিয়া উপজেলার শিক্ষাখাতের অগ্রগতি উন্নয়ন ও লেখাপড়ার মানোন্নয়নে এবং বিদ্যালয় সমুহে লেখাপড়ার সুন্দর পরিবেশ বির্নিমানে ইউএনও শিবলী নোমানের কর্মদক্ষতা বিশ্লেষন করে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক ২০১৯ বাছাই কমিটি জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষাবান্ধব ইউএনও হিসেবে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দিন মুহাম্মদ শিবলী নোমান ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গুলশান আক্তারকে নির্বাচিত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.