চকরিয়ায় যানজট নিরসনসহ সড়ক ও ফুটপাটে চাঁদাবাজী বন্ধে ইউএনও’র সহযোগিতা চাইলেন পৌর মেয়র

আবদুল মজিদ,চকরিয়া:
পর্যটন নগরী কক্সবাজারের প্রবেশদ্বার চকরিয়া পৌর শহরে যাটজন নিরসনে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনার জন্য ২৯ ডিসেম্বর (রবিবার) চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর আবেদন করেছেন চকরিয়া পৌর মেয়র আলমগীর চৌধুরী।
আবেদনে উল্লেখ করা হয়, গত ৫ ডিসেম্বর উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটিতে ও ৩১ জুলাই চকরিয়া পৌর পরিষদে চিরিংগা পৌর শহরকে যানজট মুক্ত করার লক্ষ্যে বিবিধ প্রস্তাব গৃহীত হয়। উক্ত প্রস্তাবনা বাস্তবায়নের জন্য চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সহযোগিতা চেয়েছেন পৌর মেয়র আলমগীর চৌধুরী।
আবেদনে আরো উল্লেখ করা হয়, চকরিয়া পৌর শহরের চিরিংগা পুরাতন এস আলম কাউন্টার সংলগ্ন চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে সম্পূর্ণ অবৈধভাবে বাস কাউন্টার, লোকাল সিএনজি, টমটম, ছারপোকা, হাইয়েচ-মাইক্রো স্ট্যান্ড স্থাপন এবং ফুটপাতে ভাসমান দোকান বসিয়ে কক্সবাজারগামী হাজার হাজার পর্যটন যাত্রীর ভোগান্তি এবং চিরিংগা মার্কেটে ব্যবসায়ীক কাজে স্থানীয় জনসাধারণ ও দূর-দূরান্ত থেকে আগত হাজার হাজার লোকের চরম ভোগান্তি নিরসনে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা খুবই জরুরী। তাই উপরোক্ত বিষয়ে চকরিয়া উপজেলা ও থানা প্রশাসনকে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের অনুরোধ জানান চকরিয়া পৌর মেয়র আলমগীর চৌধুরী।
উল্লেখ্য যে, চিরিংগা পৌর শহরে যানজট নিরসন, অবৈধ কাউন্টার উচ্ছেদ, ফুটপাতে দখল মুক্ত, চাঁদাবাজী বন্ধ করার দাবীতে স্বাধীন মঞ্চ সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন আন্দোলন চালিয়ে আসছে। তাদের দাবির সাথে একাত্বতা প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছিলেন মেয়র আলমগীর চৌধুরী। এর ধারাবাহিকতায় আজ চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর আবেদন করেছেন তিনি।
এবিষয়ে চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমান বলেন- পৌর মেয়র আলমগীর চৌধুরীর আবেদন গ্রহণ করা হয়েছে। শিগগিরই এব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।##

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Application to the Ministry of Information for registration.